অমেঠী- রায়বরেলীতে পূর্ণ সমর্থন কংগ্রেসকে, মোদীকে কড়া বার্তা মায়াবতীর

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

লখনউ: সমাজবাদী পার্টি এবং কংগ্রেসের মধ্যে তলায় তলায় সমঝোতা হয়েছে আর তার শিকার হবেন মায়াবতী, নরেন্দ্র মোদীর এই প্রচারে কান না দিয়ে উত্তরপ্রদেশের অমেঠী এবং রায়বরেলীতে দলীয় সমর্থকদের কংগ্রেসকেই ভোট দিতে বললেন মায়াবতী। একই সঙ্গে উত্তরপ্রদেশে মোদীর বিভাজনের রাজনীতি সফল হবে না বলেও বিজেপির উদ্দেশে তোপ দাগলেন বহুজন সমাজ পার্টির নেত্রী।

রবিবার সংবাদমাধ্যমের সামনে বসপা সুপ্রিমো বলেন, “মহাগঠবন্ধনকে ভাঙার জন্য সব চেষ্টা করছেন মোদী। শনিবার প্রতাপগড়ের সভায় তিনি এমন অনেক কথা বলেছেন, যাতে মহাগঠবন্ধনের মধ্যে ভাঙন ধরিয়ে তিনি সুবিধা করতে পারেন। মোদী চান সপা, বসপা, আরএলডি নিজেদের মধ্যে বিবাদ করুক। আমাদের দলের কর্মীদের বিভ্রান্ত করার জন্যই মোদী এমন কথা বলেন।”  কিন্তু এ সব করে যে কোনও লাভ নেই, সে কথা স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দেন বহেনজি। তিনি বলেন, “আমরা অমেঠী ও রায়বরেলীতে প্রার্থী দিইনি। সপাও দেয়নি। কারণ কংগ্রেস ওই দুই সিটে নিজেদের প্রধান দুই প্রার্থীকে দাঁড় করাতে চেয়েছিল। সেইমতো আমাদের সব ভোটারদের অনুরোধ করা হয়েছে অমেঠীতে রাহুল গান্ধী ও রায়বরেলীতে সনিয়া গান্ধীকেই ভোট দেবেন।”

উত্তরপ্রদেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে এই মন্তব্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ। মহাজোট ঘোষণার সময়ই মায়াবতী জানিয়েছিলেন কংগ্রেসের তথাকথিত শক্তিশালী দুই ঘাঁটিতে প্রার্থী দেবে না এসপি-বিএসপি জোট। তখনও কংগ্রেস এবং মহাজোট শিবিরের মধ্যে সখ্যতা ছিল। কিন্তু তারপর তিক্ততা বেড়েছে। অখিলেশ কংগ্রেসকে খুব একটা আক্রমণ না করলেও মায়াবতী সুর বেশ চড়িয়েছেন রাহুল গান্ধীদের বিরুদ্ধে। এমনকী কংগ্রেসকে ভোট দিয়ে সংখ্যালঘুদের নিজেদের ভোট নষ্ট না করারও পরামর্শ দিয়েছিলেন মায়াবতী। কংগ্রেস ইস্যুতে মহাজোটের দুই নেতা কার্যত বিভক্ত হয়ে গিয়েছিলেন। মায়াবতী যেখানে কংগ্রেসকে আক্রমণ করছেন, অখিলেশের সুর সেখানে তুলনায় অনেকটাই নরম। বুয়া-ভাতিজার এই বিভাজনকেই কাজে লাগাতে চাইছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শনিবার উত্তরপ্রদেশে তিনি বলেন, “মায়াবতীর সঙ্গে গেম খেলছে সমাজবাদী পার্টি আর কংগ্রেস। মায়াবতীকে প্রধানমন্ত্রী বানানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে এখন কংগ্রেসের দিকে ঝুঁকছে সপা। সমাজবাদী নেতাদের কংগ্রেসের মঞ্চেও দেখা গিয়েছে। ওরা মায়াবতীর সঙ্গে এমনভাবে বেইমানি করছে যে বহেনজি বুঝতেই পারছেন না।” মোদীর এই মন্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে এদিন মায়াবতী বলেন, “প্রধানমন্ত্রী আমাদের জোট ভাঙার চেষ্টা করছেন। এই অপচেষ্টা সফল হবে না। বিজেপি যাতে উত্তরপ্রদেশের বাইরে বেশি সুবিধা করতে না পারে সেজন্য আমরা আমেঠি-রায়বরেলি কংগ্রেসের দুই শীর্ষ নেতার জন্য ছেড়ে দিয়েছি। যাতে ওনারা এখান থেকে সহজেই জিততে পারেন, নিজেদের কেন্দ্রেই আটকে না থাকেন। আমার আশা আমেঠি-রায়বরেলিতে মহাজোটের সমর্থকরা কংগ্রেসকেই ভোট দেবেন।”

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest