কাজ করার সময়ে দুর্ঘটনা, কলকাতা বিমানবন্দরে মৃত্যু স্পাইসজেটের কর্মীর

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

#কলকাতা: এ রকম ভাবে কারও মৃত্যু হতে পারে, সেটা কিছুতেই বিশ্বাস করতে পারছেন না কলকাতা বিমানবন্দরের কর্মীরা। উড়ানের আগে রুটিনমাফিক পরীক্ষা করতে গিয়ে আচমকা দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু হল বেসরকারি বিমানসংস্থা স্পাইসজেটের এক কর্মীর। মঙ্গলবার রাত ২টো নাগাদ এই ঘটনাটি ঘটেছে।

image

মৃত বিমানকর্মীর নাম রোহিত বীরেন্দ্র পাণ্ডে। স্পাইসজেটের ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের কর্মী ছিলেন তিনি। কয়েক মাস আগে বদলি হয়ে এসেছিলেন কলকাতায়। মঙ্গলবার রাতে বীরেন্দ্র হ্যাঙারে বিমান রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করছিলেন। একটি বিমানের ডান দিকের চাকার তলায় কাজ করছিলেন তিনি। বীরেন্দ্রর সহকর্মীদের দাবি, এই সময় হঠাৎই বিমানের চাকা গোটানোর যে হাইড্রোলিক সাকশন সিস্টেম রয়েছে, তা চালু হয়ে যায়। ফলে বাতাসের টানে বীরেন্দ্রর মাথা থেকে ঘাড় অবধি অংশ হাইড্রোলিক সিস্টেমের মধ্যে ঢুকে যায়। কিছু ক্ষণ ছটফট করেই দমবন্ধ হয়ে নিস্তেজ হয়ে পড়েন বীরেন্দ্র। সহকর্মীরা দ্রুত তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।মৃতদেহটি ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে।

কলকাতা বিমানবন্দর সূত্রে খবর, রোহিত একা নন, ঘটনার সময় তাঁর সহকর্মীরাও বিমান পরীক্ষার কাজ করছিল। যেখানে বিমান দাঁড়িয়েছিল, সেখানে যথেষ্ট আলোও ছিল। তা হলে কেন ঘটনাটি কারও নজরে পড়ল না?  এই প্রশ্ন ওঠায় একযোগে ঘটনার তদন্তে নেমেছে স্পাইসজেট ও কলকাতা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest