গডসে বিতর্ক: জিভ কেটে নেব, হুমকি তামিলনাড়ুর মন্ত্রীর, কমল হাসানকে ৫ দিনের জন্য ব্যান করার আর্জি বিজেপির

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

#চেন্নাই: কমল হাসানের জিভ কেটে নেওয়ার হুমকি দিলেন তামিলনাড়ুর মন্ত্রী কে টি রাজেন্দ্র বালাজি। সোমবার হাসান মন্তব্য করেন, স্বাধীন ভারতের প্রথম সন্ত্রাসবাদী নাথুরাম গডসে হিন্দু ছিলেন। সেই মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই এই হুমকি দিয়েছেন বালাজি। তিনি বলেন, “সন্ত্রাসবাদের কোনও ধর্ম হয় না। না হিন্দু, না মুসলিম, না খ্রিস্টান। কিন্তু কমল হাসানের গডসেকে হিন্দু সন্ত্রাসবাদী বলেছেন। এমন মন্তব্যের জন্য ওঁর জিভ কেটে নেওয়া উচিত।”

বালাজি আরও বলেন, “হাসান সমাজে বিষ ছড়াচ্ছেন। তাঁর প্রত্যকটা কথাতেই বিষ রয়েছে। শুধু তাই নয়, জনসভায় দাঁড়িয়ে উস্কানিমূলক কথা বলে সমাজে দাঙ্গা বাধানোর চেষ্টা করছে হাসনের দল। নির্বাচন কমিশনের উচিত এখনই এই দলকে নিষিদ্ধ করা।”

অন্যদিকে,  অভিনেতা তথা মক্কল নিধি মাইয়াম-এর প্রেসিডেন্ট কমল হাসানের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করতে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হল বিজেপি। তাঁকে পাঁচ দিনের জন্য ব্যান করার আবেদন জানায় গেরুয়া শিবির। বিজেপি নেতা অশ্বিনী উপাধ্যায় বলেন, ইচ্ছাকৃত ভাবে মুসলিম সম্প্রদায়ের সামনে এমন বক্তৃতা রাখা হয়। ভোট ব্যাঙ্কের রাজনীতি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ বিজেপির। অশ্বিনী জানান, জনগণের প্রতিনিধিত্ব আইন ১৯৫১ এর ১২৩ (৩) ধারা বিরোধী কাজ করেছেন কমল হাসান।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে মোদী সরকার ক্ষমতায় আসার পর এবার প্রকাশ্যেই নাথরাম গডসের হয়ে সওয়াল করছে আরএসএস ঘেঁসা বিজেপির একাংশ। নাথুরাম গডসের মন্দিরও তৈরির চেষ্টা হয়েছে। বৈচিত্রময় ভারতের পক্ষ সওযাল করে রবিবার কমল হাসান বলেন, দেশের অধিকাংশ মানুষ চান তেরঙ্গার তিন রঙ বজায় থাকুক। ভারতীয় হিসেবে আমি গর্বিত। বুক চাপড়ে একথা বলতে পারি। উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি আত্মপ্রকাশ করে কমল হাসানের দল এমএনএম। রাজ্য বিধানসভার একটি আসনের উপনির্বাচনে এবার এমএনএম লড়াই করছে টর্চ চিহ্নে। দলের প্রার্থীর প্রচরে নেমেছেন জোর কদমে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest