ঘুমের আগে ৩ মিনিটের টোটকায় পাবেন উজ্জল ত্বক!

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

নিউজ কর্নার ওয়েব ডেস্ক: অধিকাংশ মানুষই সবচেয়ে বেশি সচেতন নিজের মুখ নিয়ে। মুখের সৌন্দর্য ধরে রাখতে তাই নিয়মিত ত্বকের সঠিক যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। ভাবছেন, দৈনন্দিন ব্যস্ততার মধ্যে রূপচর্চার সময় কোথায়? নিজের জন্য মাত্র ৩ মিনিট সময় নেই আপনার কাছে?

দিনের শেষে মাত্র ৩ মিনিট সময় বের করতে পারলেই চলবে। পার্লারে গিয়ে প্রতি সপ্তাহে মোটা টাকা খরচ না করে রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে মাত্র ৩ মিনিট নিজের জন্য দিতে পারলেই কেল্লা ফতে!

রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে এই একটি কাজ করলেই প্রতিদিন সকালে পেয়ে যাবেন ঝলমলে, সতেজ ও দীপ্তিময় ত্বক। মুখ হয়ে উঠবে উজ্জ্বল ও ফর্সা!

এর জন্য কোনও দামি উপাদানের প্রয়োজন নেই। আপনার ঘরে থাকা খুব সাধারণ প্রসাধনী সামগ্রী দিয়েই চটজলদি এই রূপচর্চা সেরে নেওয়া যায়। আসুন জেনে নেওয়া যাক তার উপায়…

উপকরণ

১ চামচ গোলাপ জল,  ৩-৪ দানা জাফরান, আধা চা চামচ অ্যালোভেরা জেল, সামান্য উষ্ণ গরম জল, ১ চামচ কালোজিরা আর ১ চামচ মধু।

ব্যবহারের পদ্ধতি

গোলাপ জলের মধ্যে জাফরানের দানা ঘণ্টা খানেক ভিজিয়ে রাখুন। যত বেশি সময় ভিজিয়ে রাখবেন, সেটি তত বেশি কার্যকরী হবে। জাফরান থেকে রং ছেড়ে দিলে এর সঙ্গে অ্যালোভেরা জেল দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।

এ বার ঠান্ডা জলে ভাল করে মুখ ধুয়ে নিয়ে এক টুকরো তুলোর দিয়ে পরিষ্কার মুখে এই মিশ্রণ ভাল করে মেখে নিন। মুখের উপর লাগানো এই প্রলেপ শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

এবার এক গ্লাস সামান্য উষ্ণ জলের মধ্যে কয়েক দানা জাফরান ও মধু মিশিয়ে খেয়ে নিয়ে ঘুমোতে যান। সকালে ঘুম থেকে উঠে পেয়ে যান উজ্জ্বল, দীপ্তিময় ত্বক।

উপকারিতা

১) উজ্জ্বল ও সুন্দর ত্বকের জন্য, ত্বক থেকে বলিরেখা ও কালো দাগ মুছে ফেলতে জাফরান অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। জাফরান শুধু ত্বকের বাইরে থেকেই কাজ করে না, ভেতর থেকেও তার জেল্লা বাড়াতে সাহায্য করে। জাফরান যখন মধুর সঙ্গে মিশিয়ে খাওয়া হয়, তখন তার কার্যকারীতা বহুগুণ বেড়ে যায়।

২) অন্যদিকে ত্বককে কোমল, টানটান ও দাগহীন করতে চাইলে অ্যালোভেরা জেল অত্যন্ত উপকারী একটি উপাদান। ঘণ্টার পর ঘণ্টা ত্বকের সতেজ ভাব ধরে রাখতে ভিটামিন ই সমৃদ্ধ অ্যালোভেরা জেল অত্যন্ত কার্যকরী।

৩) অতি প্রাচীন কাল থেকেই রূপচর্চায় গোলাপ জলের ব্যবহার হয়ে আসছে। গোলাপ জলের নিয়মিত ব্যবহারে অখুণ্ণ থাকে ত্বকের কোমলতা। সেই সঙ্গে ত্বকের জেল্লাও বহুগুণ বেড়ে যায়!

তথ্যসূত্র: জি নিউজ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest