টাকা নেই? পাঁচটা গাছ লাগালে জামিনের ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন সরকারি আধিকারিক!

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

#অমরোহা: জামিনের টাকা জোগাড় করতে পারছেন না অভিযুক্ত। তৎক্ষণাৎ হাতে মিলে গেল সেই টাকা। পরিবর্তে পাঁচটি গাছের চারা লাগাতে হল অভিযুক্তকে। এ ধরনের অনন্য উদ্যোগটি দেখা গিয়েছে উত্তরপ্রদেশের অমরোহা জেলায়। সরকারি আধিকারিকের নাম মাঙ্গেরাম চৌহান। তিনি নৌগাঁও সাদাতের সাব-ডিভিশনাল ম্যাজিস্ট্রেটপদে কর্মরত।

তবে শুধু গাছ লাগালেই চলবে না। কম পক্ষে একটি গাছকে বাঁচিয়ে রাখার গ্যারান্টি দিতে হবে। অর্থাৎ, লাগানো চারার পরিচর্যার দায়িত্বও নিতে হবে। চৌহান জানান, কোথায় গাছ লাগাচ্ছেন, সেটা লিখিত ভাবে জানাতে হয়েছে। হতে পারে অভিযুক্ত নিজের বাড়ির সামনে লাগাতে পারেন চারা গাছ। অথবা বাগানে, পশুখামারে- যে কোনো জায়গাতেই পাঁচটি গাছের চারা লাগালেই মিলবে জামিন। তার পরে কি হবে?

সে সবেরও ব্যবস্থা ছকে দিয়েছেন চৌহান। তিনি জানিয়েছেন, অভিযুক্তর গাছ লাগানোর লিখিত চুক্তিপত্র পাওয়ার পর রাজস্ব বিভাগের একটি দল ওই ব্যক্তির নির্দিষ্ট করা জায়গায় যায় এবং চারাগাছ রোপণ করা হয়েছে কি না, তা যাচাই করে দেখে। যাদের ঘরে কোনো জায়গা নেই, তাঁরা সরকারি জমিতেও গাছ লাগাতে পারবেন। এই ধরনের কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে অপরাধীদের কাছে একটা নেতিবাচক বার্তা দিতে চান চৌহান। এই ধরনের কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকলে মানুষের মনের রাগ কমে যেতে পারে বলে মনে করেন তিনি। তবে এখানেই শেষ নয়, এই ধরনের উদ্যোগে লাগানো গাছের সঠিক পরিচর্যা হচ্ছে কি না, সে ক্ষেত্রেও জিও-ট্যাগিংয়ের মাধ্যমে নজরদারি চালানো হবে।

ভবিষ্যৎ তো আগাম নির্ধারণ করা অসম্ভব! দেখা যাক না, এই অনন্য উদ্যোগ কতটা কাজে দেয়?

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest