তৃতীয় দফায় ৯০%‌ বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী, বঙ্গে ৫ বিজেপি প্রার্থীর ৪ জনই অভিযুক্ত

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

কলকাতা: তৃতীয় দফার ভোটে ৯০ শতাংশের বেশি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে। শুক্রবার নির্বাচন কমিশনের বিশেষ পর্যবেক্ষক অজয় ভি নায়েক নির্বাচন দপ্তরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘‌আমরা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে অতিরিক্ত ৫০ কোম্পানি ফোর্স চেয়েছি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকও অনুমোদন দিয়েছে।’‌ জানা গেছে, তৃতীয় দফা ভোটে ৩২৪ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে। প্রথম দফার ভোটে ছিল ৮৩ কোম্পানি, দ্বিতীয় দফায় ১৯৪ কোম্পানি। কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশাপাশি রাজ্য পুলিশও থাকছে। ২৩ এপ্রিল তৃতীয় দফার ভোট। লোকসভা কেন্দ্রগুলি হল বালুরঘাট, জঙ্গিপুর, মুর্শিদাবাদ, উত্তর মালদা এবং দক্ষিণ মালদা।

তৃতীয় দফায় বাংলার পাঁচটি কেন্দ্রে নির্বাচন হতে চলেছে। সেই সব আসনের প্রার্থীদের অপরাধের তথ্য নিয়ে সমীক্ষা রিপোর্ট প্রকাশ করেছে পর্যবেক্ষণ সংস্থা ‘এডিআর’ ও ‘ওয়েস্টবেঙ্গল ইলেকশন ওয়াচ’। তাদের রিপোর্টেই দেখা যাচ্ছে, এই পর্বে প্রতিদ্বন্দ্বী বড় দলগুলির মধ্যে অপরাধের পরিসংখ্যানে এগিয়ে বিজেপি-ই! তার পরেই রয়েছে তৃণমূল।

নির্বাচন পর্যবেক্ষণ সংস্থার বিশ্লেষণ অনুযায়ী রাজ্যে তৃতীয় পর্বের পাঁচটি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বী বড় দলগুলির মধ্যে অপরাধের হিসেবে বিজেপি শীর্ষে রয়েছে। তাদের পাঁচ জন প্রার্থীর মধ্যে চার জনের বিরুদ্ধে অপরাধের অভিযোগ রয়েছে (শতকরা হিসেবে ৮০) এবং সেই সমস্ত অভিযোগই অত্যন্ত গুরুতর।তৃণমূলের পাঁচ জন প্রার্থীর মধ্যে দু’জনের বিরুদ্ধে অপরাধের অভিযোগ রয়েছে এবং দু’জনেই গুরুতর মামলায় অভিযুক্ত (শতকরা হিসেবে ৪০)। তার পরে আছে সিপিএম। চতুর্থ স্থানে কংগ্রেস। ওই দু’দলের।

পশ্চিমবঙ্গের পাঁচটি আসনে মোট ৬১ জন প্রার্থীর মধ্যে ১৪ জনের বিরুদ্ধে গুরুতর অপরাধের অভিযোগ রয়েছে বলে ওই রিপোর্টে জানানো হয়েছে।সারা দেশে তৃতীয় দফার নির্বাচনে মোট ১৫৯৪ জন প্রার্থী রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ২৩০ জন অর্থাৎ ১৪ শতাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে গুরুতর অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। খুনের অভিযোগ আছে ১৩ জন প্রার্থীর বিরুদ্ধে। ২৯ জনের বিরুদ্ধে রয়েছে শ্লীলতাহানি, ধর্ষণের মতো অভিযোগ। নির্বাচন কমিশনে জমা পড়া হলফনামা যাচাই করে এই তথ্য প্রকাশ করেছে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ সংস্থা ‘অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্র্যাটিক রিফর্মস’ (এডিআর)।

শুধু প্রার্থী নয়, রাজনৈতিক দলগুলির উপরেও এই সমীক্ষা করেছে এডিআর। তাতে দেখা যাচ্ছে, অভিযুক্ত প্রার্থীদের নিরিখে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূলকে পিছনে ফেলে দিয়েছে সিপিএম এবং কংগ্রেস। তালিকায় প্রথমে রয়েছে এনসিপি। তাদের ৬০ শতাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে অপরাধের অভিযোগ রয়েছে এবং ৫০ শতাংশ প্রার্থী গুরুতর অপরাধে অভিযুক্ত। সিপিএমের ৫৮ শতাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে এবং ৩২ শতাংশ গুরুতর অপরাধে অভিযুক্ত। চার নম্বরে রয়েছে কংগ্রেস। তাদের ৪৪ শতাংশ প্রার্থী অভিযুক্ত এবং ২৭ শতাংশ গুরুতর। তৃণমূলের ৪৪ শতাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে এবং তাঁদের সকলেই গুরুতর অপরাধে অভিযুক্ত। দেশওয়াড়ি হিসেবে ষষ্ঠ স্থানে বিজেপি। তাদের ৩৯ শতাংশ প্রার্থী অভিযুক্ত এবং গুরুতর অপরাধে অভিযুক্ত তার ২৭ শতাংশ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest