পুরুলিয়ায় মোদীর সভা শুরুর আগে তুমুল বিশৃঙ্খলা, পুলিস লক্ষ্য করে জলের বোতল, চেয়ার ছুঁড়লেন কর্মীরা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

#পুরুলিয়া: ষষ্ঠ দফা ভোটের আগে রাজ্যে মঙ্গলবার দুটি সভায় ভোটপ্রচারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ বাঁকুড়ার পুরন্দরপুরের সভাটি নির্বিঘ্নেই সম্পন্ন হয়েছে৷ কিন্তু পুরুলিয়ার রায়বাঘিনী মাঠে সভা শুরু হওয়ার আগেই তুমুল বিশৃঙ্খলা৷ উপচে পড়া ভিড়ের মধ্যে চেয়ার ছোঁড়াছুঁড়ি, সংঘর্ষ৷ সবচেয়ে সুরক্ষিত ডি জোনের ব্যারিকেড ভেঙে চেয়ার নিয়ে মঞ্চের একেবারে সামনে যাওয়ার চেষ্টা সমর্থকদের৷ মুহূর্তের মধ্যে পরিস্থিতি পুলিশের একেবারেই হাতের বাইরে চলে গিয়েছে বলে খবর৷

পুরুলিয়াতে এই মুহূর্তে ৪০ডিগ্রি তাপমাত্রা। প্রখর রোদের মধ্যেই হাজির হয়েছেন কর্মী সমর্থকরা। সভাস্থলে কর্মী সমর্থকদের জন্য একটি ছাউনির ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেখানে বেশ কিছু চেয়ারও রাখা হয়েছিল কর্মী সমর্থকদের বসার জন্য। সভায় উপস্থিত সকল কর্মী সমর্থকরাই ছাউনির নীচে আসার চেষ্টা করেন। তা নিয়েই শুরু হয় বিশৃঙ্খলা। কর্মীদের মধ্যে হুড়োহুড়ি শুরু হয়। সকলে জলের বোতল, চেয়ার ছোড়াছুড়ি করতে থাকেন। পুলিস পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গেলে জনতা আরও ক্ষেপে যায়। পুলিসকে লক্ষ্য করেও চলতে থাকে ছোড়াছুড়ি।

সভায় ততক্ষণে উপস্থিত হয়েছেন জেলা বিজেপি সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী৷ পরিস্থিতি দেখে তিনি মঞ্চ থেকেই হাত জোড় করে সমর্থকদের শান্ত হওয়ার অনুরোধ জানাতে থাকেন বারবার৷ তাতেও কোনও লাভ হয়নি৷ জনতার চাপ সামলাতে পুলিশ, নিরাপত্তারক্ষীরাও ব্যর্থ হন৷ এর আগে ভোটের প্রচারে আসা নরেন্দ্র মোদীর ঠাকুরনগরের সভাতেও এরকম বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল৷ চেয়ার ছোঁড়াছুঁড়ি, জনতা-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল সেবারের সভাও৷

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest