ফিরে এল আইলান কুর্দির স্মৃতি, নদীর জলে ভেসে উঠল শরণার্থী বাবা-মেয়ের নিথর দেহ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

নিউজ কর্নার ওয়েব ডেস্ক: মেয়েকে নিজের টি-শার্টের ভিতরে ঢুকিয়ে রেখেছিলেন। স্রোতে দুই বছরের মেয়ে যেন কোনওভাবেই ভেসা না যায়! কিন্তু তিনিই শেষ পর্যন্ত তলিয়ে গেলেন ছোট্ট মেয়েকে নিয়ে। শেষ রক্ষা হল না। মর্মান্তিক ছবি দেখে আঁতকে উঠল বিশ্ববাসী। আরও একবার প্রকাশ্যে এল বিশ্বজুড়ে শরণার্থীদের দুর্দশার ছবি।

ছবিটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রিও গ্র্যান্ডে এলাকার। এই অংশে মেক্সিকোর সঙ্গে সীমানা রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের। মেক্সিকোর এক সংবাদপত্রের মতে, মৃত ব্যক্তি এল সালভাদরের। নাম অস্কার অ্যালবার্তো মার্টিনেজ রমিরেজ ও তাঁর মেয়ে ভ্যালেরিয়া। ছবিতে দেখা যাচ্ছে,নীচের দিকে মুখ করে মৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন ওই ব্যক্তি। তাঁর টি-শার্টির ভেতরে মাথা ঢুকিয়ে রয়েছে শিশুটি। তার একটি হাত বাবার টি-শার্টের গলার কাছ দিয়ে বেরিয়ে গলায় জড়িয়ে রয়েছে। দেহগুলি খুঁজে পাওয়ার পর একটি মেক্সিকান সংবাদপত্র সোমবার সেই খবর প্রকাশ করেছে। তারপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে সেই ছবি। সংবাদপত্রটি জানিয়েছে, ওই পরিবার মার্কিন কর্তৃপক্ষের কাছে আশ্রয় চেয়েছিল। তা না পেয়ে হতাশ হয়ে পড়েছিল। রবিবার মেয়েকে নিয়ে নদী পেরিয়ে আসে। মেয়েকে নদীর পাড়ে বসিয়ে রেখে ফের নিজের স্ত্রীকে আনতে জলে নামেন। কিন্তু মেয়ে ভ্যালেরিয়া বাবাকে ছাড়তে চাইছিল না। সেও নদীতে ঝাঁপ দেয়। মেয়েকে ধরে ফেললেও স্রোতে দুজনকেই ভাসিয়ে নিয়ে যায়।মৃত্যু হয় দুজনেরই।

645x344 german migrant rescue ship renamed after syrian toddler aylan kurdi 1549864692179

এই হৃদয়বিদারক ছবিটা প্রকাশিত হওয়ার পরেই উস্কে গিয়েছে সিরিয়ার তিন বছরের শিশু আইলান কুর্দির স্মৃতি। ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে সিরিয়া থেকে ভূমধ্যসাগর পার হয়ে গ্রিসে আসার সময়ে গিয়ে নৌকাডুবিতে মৃত্যু হয়েছিল শরণার্থী সিরিয়ান শিশুটির। তার দেহ ভেসে উঠেছিল তুরস্কের বোদরুম শহরের বেলাভূমিতে। লাল জামা, নীল প্যান্ট পরা আলানের উপুড় হয়ে বালিতে মুখ গুঁজে তার পড়ে থাকার ছবি নাড়িয়ে দিয়েছিল সারা বিশ্বকে। বিশ্বজোড়া শরণার্থী সমস্যায় বড় ধাক্কা ছিল ছবিটি। বিশ্ব জুড়ে দাবি উঠেছিল আমেরিকার অমানবিক অভিবাসন নীতিতে বদল আনার। ফের একবার যেন হাজার হাজার শরণার্থী আইলানের কুর্দির কথা মনে করিয়ে গেল আরও এক ছবি।

উল্লেখ্য, মেক্সিকোর সীমান্ত দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে গিয়ে বহু মানুষের মৃত্যু হয় প্রতি বছর। গত বছরই ২৮৩টি মৃত্যুর খবর মিলেছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest