‘বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে বিজেপি-ই’, ভিডিয়ো দেখিয়ে প্রমাণের চেষ্টা ডেরেক-পার্থর

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

#কলকাতা: বিদ্যাসাগর কলেজে ঈশ্চরচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়ের মূর্তি ভাঙার ঘটনায় অমিত শাহের অভিযোগ উড়িয়ে প্রমাণ সাপেক্ষে বিজেপিকে নিশানা করলেন শিক্ষামন্ত্রী। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাণ্ডবের একটি ভিডিও ফুটেজ দেখিয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় দাবি করলেন, বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার মতো ঘৃণ্য কাজ করে তা অ্যনদিকে ঘোরানোর চেষ্টা করছে বিজেপি।

বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা নিয়ে তোলপাড় রাজ্য। কারা মূর্তি ভাঙল, তাই নিয়ে চলছে রাজনৈতিক চাপান উতোর। তৃণমূলের অভিযোগ, আমিত শাহের রোড শো কলেজে ঢুকে তাণ্ডব চালিয়েছে বিজেপি সমর্থকরা। বিজেপি নেতৃত্বের পাল্টা অভিযোগ, নিজেরাই মূর্তি ভেঙে রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে বিজেপির ঘাড়ে দোষ চাপাচ্ছে তৃণমূল। এই তরজার মধ্যেই একাধিক ভিডিয়ো শেয়ার করে বিজেপির বিরুদ্ধেই মূর্তি ভাঙার প্রমাণ দিতে চেয়েছেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ওব্রায়েন। পরে সাংবাদিক বৈঠকেও একাধিক ভিডিয়ো দেখিয়ে তাণ্ডবের দায় বিজেপির ঘাড়ে চাপিয়েছেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ। অন্য দিকে কলকাতাতেও একই কায়দায় ভিডিয়ো চালিয়ে কার্যত আঙুল দিয়ে দেখিয়েছেন, এই তাণ্ডবকারীরা বিজেপি সমর্থক। অমিত শাহ মিথ্যে ছবি দেখিয়ে ঘটনার মোড় ঘোরানোর চেষ্টা করছেন বলেও তোপ দাগেন তিনি।

এদিন সকালে দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠক করেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। সেখানে কিছু ছবি দেখিয়ে অমিত শাহ দাবি করেন, “মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিদ্যাসাগর কলেজে তাণ্ডব চালিয়েছে টিএমসিপি-ই। আমরা গেটের বাইরে ছিলাম। গেট-ও বন্ধ ছিল। তৃণমূলের গুন্ডারাই বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙেছে। সমবেদনা আদায়ে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙে মিথ্যা নাটক করছে এখন।” বিজেপি সভাপতির আনা অভিযোগ সাংবাদিক বৈঠকে সাফ খারিজ করে দেন শিক্ষামন্ত্রী। কটাক্ষ করে ‘গল্পের বই লেখার’ পরামর্শ দেন অমিত শাহকে। কলেজে ঢুকে তাণ্ডব, বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার ঘটনায় এদিন বিজেপিকে নিশানা করে তীব্র সমালোচনা করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বলেন, “বর্বরোচিত আক্রমণ। বিদ্যাসাগর কলেজের ঘটনা আমাদের মাথাকে হেঁট করে দিয়েছে। নিন্দার কোনও ভাষা নেই। ক্ষমতার লোভে অন্ধ হয়ে গুন্ডাগিরি, দাদাগিরি করছে।”

মঙ্গলবার বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের রোড শো ঘিরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায় কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিদ্যাসাগর কলেজ চত্বরে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে অমিত শাহকে কালো পতাকা দেখানো ঘিরে এক দফা উত্তেজনা হয়। তার পর বিদ্যাসাগর কলেজে কার্যত রণক্ষেত্রের পরিস্থিতি তৈরি হয়। রোড শো শেষে দেখা যায়, বিদ্যাসাগর কলেজের ভিতরে থাকা বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙাচোরা অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এ ছাড়া বাইক এবং সাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ভিডিয়োও সংবাদ মাধ্যমে দেখা গিয়েছে। কিন্তু ওই ঘটনার চেয়েও বড় হয়ে উঠেছে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা। রাতেই ঘটনাস্থলে গিয়ে মূর্তি ভাঙার নিন্দা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও ঘটনাস্থলে গিয়ে নিন্দা করেন। এই মূর্তি ভাঙারও একাধিক ভিডিয়ো রয়েছে ডেরেকের টুইটার হ্যান্ডলে। তবে সেগুলি নিজে পোস্ট করেননি, অধিকাংশই রিটুইট করেছেন।

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest