ভারতীয় ফুটবল দলের নতুন কোচ হলেন প্রাক্তন বিশ্বকাপার ইগর স্টিমাচ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

#নয়াদিল্লি: আগামী দু’বছরের জন্য নতুন কোচ নিয়োগ করে ফেলল ভারতীয় ফুটবলের সর্বময় সংস্থা এআইএফএফ। ক্রোয়েশিয়ার প্রাক্তন বিশ্বকাপার তথা ফুটবলার ইগর স্টিমাচকে কোচ হিসাবে নির্বাচিত করল এআইএফএফের এগজিকিউটিভ কমিটি।

জানুয়ারি মাসেই দলের দায়িত্ব ছাড়েন প্রাক্তন কোচ স্টিফেন কন্সটানটাইন। ফলে এত দিন বিনা কোচেই ছিলেন সুনীল ছেত্রিরা। কোচ হিসাবে ২০১৪ বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়াকে মূলপর্বে নিয়ে গিয়েছিলেন ইগর। তাঁর আমলেই বর্তমান লাইমলাইটে খেলা মাতেও কোভাচিচ, আনতে রেবিচ, ইভান পেরসিচর উঠে আসেন। স্টিমাচকে স্বাগত জানিয়েছেন এআইএফএফ প্রেসিডেন্ট প্রফুল প্যাটেল। তিনি বললেন, “ব্লু টাইগারদের জন্য ইগরই সঠিক ব্য়ক্তি। ওকে আমি স্বাগত জানাচ্ছি। ভারতীয় ফুটবল একটা পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। আমি নিশ্চিত ওর বিরাট অভিজ্ঞতা আমাদের সঠিক দিশা দেখাবে ভবিষ্যতে।”

ক্রোয়েশিয়ার কিংবদন্তি ফুটবলার দাভর সুকেরের প্রাক্তন সতীর্থ স্টিমাচ। ৫১ বছরের ফুটবলার ১৯৯০-২০০২ পর্যন্ত দেশের হয়ে রক্ষণ ভাগ সামলেছেন। ৯৮ সালে বিশ্বকাপ তৃতীয় স্থানে শেষ করা ক্রোয়েশিয়া দলেও ছিলেন তিনি। ৯৬ সালে ইউরো কাপের শেষ আটে গিয়েছিলেন। ২০১২-২০১8 পর্যন্ত ক্রোয়েশিয়ার কোচ হিসেবেও পাওয়া গিয়েছে স্টিমাচকে। তাঁর কোচিংয়ের ক্রোটরা ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করেছিল। সুনীলদের দায়িত্ব নেওয়ার পর স্টিমাচ টিডি হিসেবে  দোরু আইজ্যাক দোরুকে আর সহকারি কোচ হিসেবে ভেঙ্কটেশকেও পাবেন।

কোন জায়গায় অন্যান্য কোচকে হারিয়ে ইগর কোচের দৌড়ে জিতলেন? শ্যাম থাপা বললেন, “ ইন্টারভিউতে ভারতীয় দলকে নিয়ে ইগর যেভাবে প্রেজেন্টশন দিলেন, তা অন্য কোনও কোচের মধ্যে দেখলাম না। এশিয়ান কাপে ভারতের প্রতিটি ম্যাচ দেখেছেন তিনি। ভারতীয় দলের সব ফুটবলার সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য রয়েছে তাঁর কাছে। বোঝাই গিয়েছে, ভারতীয় দলের কোচ হওয়ার জন্য তিনি তৈরি হয়ে এসেছেন। ক্রোয়েশিয়ার জাতীয় দলের হয়ে ইগরের প্রচুর সাফল্য। আমাদের জাতীয় কোচ নির্বাচনের ক্ষেত্রে বেশি জোর দেওয়া হয়েছিল, ইন্টারভিউতে থাকা কোচরা জাতীয় দলকে নিয়ে কতটা সাফল্য পেয়েছেন, তার দিকে।”

স্টিমাচের হাত ধরেই ক্রোয়েশিয়ার জাতীয় দলে অভিষেক হয়েছিল ম্যাটিও কোভাচিচ, আন্তে রেবিচ, অ্যালেন হ্যালিলোভিচ, ইভান পেরিসিচের মতো ফুটবলাররা। তাঁর কোচিংয়েই ডারিও সানা, ড্যানিয়েল সুবাচিচ, ইভান স্ট্রিনিচ, কোভাচিচ, পেরিসিচরা নিজেদের এগিয়ে নিয়ে গিয়েছেন। স্টিমাচ ভারতের কোচ হওয়ার আগে শেষবার কাতারের আল-শাহহানিয়া ক্লাবে কোচিং করিয়েছেন। চলতি বছর বাহরিনের কাছে হেরেই এএফসি এশিয়ান কাপ থেকে বিদায় নিয়েছে ভারত। এরপরেই জাতীয় দলের দায়িত্ব থেকে সরে আসেন সুনীল ছেত্রীদের হেডস্যার স্টিফেন কনস্ট্যানটাইন। নতুন কোচের সন্ধানে ছিল প্য়াটেল অ্যান্ড কোং। স্টিমাচের কোচিংয়ে সুনীলদের প্রথম টুর্নামেন্ট হতে চলেছে কিংস কাপ। প্রথম ম্যাচে কুরাকাওর মুখোমুখি হবে টিন ইন্ডিয়া। তারপর ভিয়েতনাম ও থাইল্যান্ডের সঙ্গে খেলা রয়েছে। ২০২২ বিশ্বকাপ কোয়ালিফায়ারের প্রস্তুতি হিসেবেই ওই টুর্নামেন্টকে দেখছে ভারত।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest