শত্রুপক্ষের গতিবিধির ওপরে নজরদারির জন্য মহাকাশে উপগ্রহ পাঠাল ইসরো, দেখা যাবে চিন-পাকিস্তানের গতিবিধি

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

#শ্রীহরিকোটা: শত্রুপক্ষের ওপরে নজরদারি চালানোর জন্য মহাকাশে বিশেষ উপগ্রহ পাঠাল ভারত। বুধবার ভোর সাড়ে পাঁচটায় অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটা থেকে মহাকাশে এই বিশেষ উপগ্রহ (রিস্যাট-২) পাঠাল ভারত। এর ফলে মহাকাশ থেকে শত্রুপক্ষের উপর নজরদারি হবে আরও নিখুঁত এবং স্পষ্ট।

পাকিস্তানের জঙ্গিঘাঁটিগুলিতে উগ্রপন্থীদের ওপর নজরদারি চালানো আরও স্পষ্ট হবে এই উপগ্রহের মাধ্যমে। সন্ত্রাসবাদীদের গতিবিধি এক লহমায় চলে আসবে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীদের কাছে। এই উপগ্রহ ছবি পাঠাতে শুরু করলে ভারত মহাসাগরে কোনও চিনা যুদ্ধজাহাজ লুকিয়ে আছে কি না অথবা পাকিস্তানের জঙ্গি ঘাঁটিতে উগ্রপন্থীরা কী করছে, সেই গতিবিধি এক লহমায় চলে আসবে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীদের কাছে। সেই অনুযায়ী প্রস্তুতি নিতে পারবে ভারতীয় সেনাও।

এর আগের রিস্যাট পর্যায়ের উপগ্রহগুলির থেকে অনেক শক্তিশালী এই রিস্যাট-২বি। এই মুহূর্তে মহাকাশে আছে ভারতের রিস্যাট-১ এবং রিস্যাট-২ উপগ্রহ। তাদের থেকে অনেক নিখুঁত ছবি পাঠাবে এই নয়া উপগ্রহ। দিনের মতোই রাতের বেলাতেও কাজ করবে এই উপগ্রহের শক্তিশালী রেডার। সমুদ্রপৃষ্ঠের ৫৫৭ কিলোমিটার উপর থেকে মেঘের আস্তরণ ভেদ করে শত্রুভূমিতে দৃষ্টি রাখতে পারবে এই নজরদারি উপগ্রহ। নজরদারির কারণেই এই উপগ্রহকে ডাকা ‘আকাশের গোপন চোখ’ বা ‘গুপ্তচর’ উপগ্রহ নামেও। কোনও একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুর ছবি দিনে দুই থেকে তিনবার তুলতে পারবে ভারতের ৬১৫ কেজি ওজনের এই নয়া ‘গুপ্তচর’। এর ফলে কোনও বাড়ি বা অঞ্চলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কী পরিবর্তন হচ্ছে, তা নির্ভুল ভাবে বলতে পারবে রিস্যাট-২। পাকিস্তান ছাড়াও এই ‘গুপ্তচর’ নজর রাখবে আরব সাগর, বঙ্গোপসাগর এবং ভারত মহাসাগরের উপর।

২০০৮ সালের মুম্বই হামলার পরই এই ধরনের নজরদারি উপগ্রহের প্রয়োজনীয়তা বুঝতে পারে ভারত। এই উপগ্রহে ব্যবহার করা হয়েছে সিন্থেটিক অ্যাপারচার রেডার, যার ফলে উচ্চমানের ছবি তোলা যাবে আকাশ থেকে। নজরদারি ছাড়া প্রাকৃতিক দুর্যোগ-সহ অন্যান্য বিপর্যয় মোকাবিলার ক্ষেত্রেও কাজে লাগানো যাবে এই উপগ্রহ। এখানেই শেষ নয়, আগামী জুলাইয়েই ফের আরও একটি বিরল কৃতিত্বের মুখোমুখি হতে চলেছে ইসরো। এই সময়েই চাঁদে রোবট পাঠানোর পরিকল্পনা ইসরোর। এই উপগ্রহের সফল উৎক্ষপণের পর ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থাকে অভিনন্দন জানিয়ে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন টুইট করেছেন।

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest