শেষ দফার আগেই এক্সিট পোল, টুইটার থেকে পোস্ট সরানোর নির্দেশ কমিশনের

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

#নয়াদিল্লি: ৯ মে সপ্তম দফার ভোট শেষের আগে বুথফেরত সমীক্ষা প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে নির্বাচন কমিশনের। কিন্তু সে সব এড়িয়েই সোশ্যাল মিডিয়ায় গুঞ্জন, গুজব ছড়াচ্ছে।এমনই একটি পোস্টের জেরে এ বার টুইটারকে সতর্ক করল নির্বাচন কমিশন। ওই পোস্ট-সহ ভোট পরবর্তী সমীক্ষা সংক্রান্ত সমস্ত পোস্ট সরিয়ে দেওয়ার দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কমিশনের কর্তারা।

যদিও সরকারি ভাবে এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি কমিশনের কোনও অধিকর্তা। তবে কমিশনের বর্ষীয়ান এক আধিকারিক বলেছেন, ‘‘সার্বিক ভাবে আলাদা করে কোনও নির্দেশ দেওয়া হয়নি। নির্দিষ্ট একটি পোস্টকে কেন্দ্র করে নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে টুইটার কর্তৃপক্ষকে। তবে তার আগেই ওই পোস্টটি নিজেই সরিয়ে নিয়েছেন ওই ব্যক্তি।’’

শুধু টুইটারকে অনুরোধ করাই নয়। নিয়মবহির্ভূত কাজ করার জন্য ইতিমধ্যেই তিনটে সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিয়েছে কমিশন। ওই তিন সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা ভোট চলাকালীনই এক্সিট পোল প্রকাশ করছিল। এই কারণে তাদের শো-কজ করেছে কমিশন। এই ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনের স্পষ্ট নির্দেশ দয়েছে। রিপ্রেজেন্টেশন অব দ্য পিপল্‌স অ্যাক্টের ১২৬এ ধারা অনুযায়ী “নির্বাচন চলাকালীন কোনো ব্যক্তি বা কেউ কোনো এক্সিট পোল করতে পারবে না।” ওই ধারাতেই বলা রয়েছে, এই নিয়ম যদি কেউ ভাঙে তা হলে তার সর্বোচ্চ দু’বছর পর্যন্ত হাজতবাস হতে পারে।

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest