২৭ বছরের দাম্পত্য জীবনে ইতি টানলেন বিল ও মেলিন্ডা গেটস, বিশ্বের সবচেয়ে দামী বিবাহ বিচ্ছেদ?

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

দীর্ঘ ২৭ বছরের সম্পর্কে ইতি টানতে চলেছেন বিল গেটস (Bill Gates) ও মেলিন্ডা গেটস! আর সম্ভবত এটাই বিশ্বের সবচেয়ে দামী বিবাহ বিচ্ছেদের নজির হতে চলেছে।

১৯৮৭ সালে মাইক্রোসফটে (Microsoft) থাকাকালীন প্রথমবার মেলিন্ডার সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়েছিল বিলের। তার কিছু পরই হাতে হাত মিলিয়ে কাজ শুরু করেন তাঁরা। ১৯৯৪ সালে দম্পতি হিসেবে নতুন ইনিংস শুরু করেছিলেন তাঁরা। সেই দীর্ঘ বৈবাহিক জীবনেই এবার ইতি টানছেন তাঁরা। মঙ্গলবার টুইট করে একটি বিজ্ঞপ্তিতে নিজেদের সিদ্ধান্তের কথা জানালেন গেটস দম্পতি। লেখেন, “২৭ বছরেরও বেশি সময় একসঙ্গে কাটিয়েছি। তিন প্রতিভাবান সন্তান রয়েছে আমাদের। আর একটা প্রতিষ্ঠান আছে যা বিশ্বজুড়ে সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করে। এই প্রতিষ্ঠানের জন্য আগের মতোই একসঙ্গে কাজ চালিয়ে যাব। কিন্তু দম্পতি হিসেবে আর একসঙ্গে বুড়ো হতে পারব না আমরা। আপাতত আমাদের একে অন্যের থেকে দূরত্ব বজায় রাখা ও প্রাইভেসিকে গুরুত্ব দেওয়াই সঠিক সিদ্ধান্ত বলে মনে করছি।” প্রসঙ্গত, বছর দুয়েক আগেই বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটেছিল আমাজন কর্ণধার জেফ বেজস ও ম্যাক্সকেঞ্জির। এবার গেটস দম্পত্তিও আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন।

আরও পড়ুন: ভিড়প্রেমী মোদীই দেশকে এই বিপর্যয়ের দিকে ঠেলে দিলেন, মন্তব্য ‘The Australian’-এর, তড়িঘড়ি আসরে ভারত

বর্তমানে বিশ্বের চতুর্থ ধনী ব্যক্তি বিল গেটস ১৩০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের মালিক। বিচ্ছেদ হওয়ার অর্থ বিল ও মেলিন্ডার মধ্যে ভাগাভাগিও হতে চলেছে। যদিও সে বিষয়ে দম্পতি কিছু খোলসা করেননি। তবে আপাতত তাঁরা বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনে একসঙ্গেই কাজ করবেন। যে প্রতিষ্ঠান স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও পরিবেশ নিয়ে কাজ করে। ইতিমধ্যে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার দায়িত্বও নিয়েছে ২০০০ সালে তৈরি হওয়া তাঁদের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাটি।

গেটস দম্পতির বিবাহবিচ্ছেদের খবর সামনে আসতেই নানাধরনের প্রতিক্রিয়া মিলছে নেটদুনিয়ায়। কেউ কেউ বিল গেটসকে ডেট করতে যাওয়ার প্রস্তাব দিচ্ছেন তো কেউ আবার তাঁদের বিচ্ছেদে শোকাহত হয়ে টুইট করেছেন। সবমিলিয়ে চর্চার শীর্ষে গেটস দম্পতির ডিভোর্সের খবর।

আরও পড়ুন: ইজরায়েলের তীর্থস্থানে পদপিষ্ট হয়ে মৃত অন্তত ৪৪, আহত বহু

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest