Sunil Ganguly Birthday: All these sayings of love and affection will fascinate you ...

Sunil Ganguly Birthday: প্রেম ও ভালোবাসা এই সব উক্তি আপনাকে মুগ্ধ করবে…

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় বিশ শতকের শেষভাগে সক্রিয় একজন প্রথিতযশা বাঙালি সাহিত্যিক। তিনি ১৯৩৪ সালের ৭ সেপ্টেম্বর অধুনা বাংলাদেশের মাদারীপুরে জন্মগ্রহণ করেন। মাত্র চার বছর বয়সে তিনি কলকাতায় চলে আসেন। তিনি বাংলা সাহিত্যের অন্যতম পুরোধা ব্যক্তিত্ব হিসাবে সর্ববৈশ্বিক বাংলা ভাষাভাষী জনগোষ্ঠীর কাছে ব্যাপকভাবে পরিচিত ছিলেন। বাংলাভাষী এই ভারতীয় সাহিত্যিক একাধারে কবি, ঔপন্যাসিক, ছোটোগল্পকার, সম্পাদক, সাংবাদিক ও কলামিস্ট হিসাবে অজস্র স্মরণীয় রচনা উপহার দিয়েছেন।

সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় আধুনিক বাংলা কবিতার জীবনানন্দ-পরবর্তী পর্যায়ের অন্যতম প্রধান কবি। একই সঙ্গে তিনি আধুনিক ও রোমান্টিক। তাঁর কবিতার বহু পঙ্‌ক্তি সাধারণ মানুষের মুখস্থ। সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় “নীললোহিত”, “সনাতন পাঠক”, “নীল উপাধ্যায়” ইত্যাদি ছদ্মনাম ব্যবহার করেছেন। জন্মদিনে ফিরে দেখা তাঁর প্রেম ও ভালোবাসা নিয়ে কিছু উক্তি।

  • “আমার ভালোবাসার কোনো জন্ম হয় না
    মৃত্যু হয় না-
    কেননা আমি অন্যরকম ভালোবাসার হীরের গয়না
    শরীরে নিয়ে জন্মেছিলাম।” – ‘জন্ম হয় না, মৃত্যু হয় না’ 
  • “দুঃখ চেয়েছি, তা বলে এতাটা দুঃখিত হয়ে
    থাকতে চাইনি
    সকলি গোপন, সকলি নীরব, একা একা শুধু
    বুক ভার করা
    কার কাছে যাবো, কাকে যে বলবো, কেউ নেই, কোনো
    নাম মনে নেই।” – এই সময়
  • “কারোর আসার কথা ছিল না
    কেউ আসেনি
    তবু কেন মন খারাপ হয়।” – ‘স্বপ্নের অন্তর্গত
  • একটি কথা বাকি রইলো থেকেই যাবে
    মন ভোলালো ছদ্মবেশী মায়া
    আর একটু দূর গেলেই ছিল স্বর্গ নদী
    দূরের মধ্যে দূরত্ব বোধ কে সরাবে।” –‘একটি কথা’

আরও পড়ুন: দেখে নিন স্বামী বিবেকানন্দ-এর এমন কিছু বাণী, যা আপনাকে মানসিক শক্তি দেবে

  • “তুমি তো আমারই শুধু, দূর থেকে দেখা
    শুকনো চুল, ভিজে মুখ, করতলে মসৃণ চিবুক
    তুমি নারী
    অহঙ্কার তোমাকে মানায় না–
    যে তোমাকে দেখে, সেই তোমাকে সুন্দর করে
    দ্রষ্টা যে, ঈশ্বরও সে।
    তোমার নিঃসঙ্গ রূপ মেশে বাতাসের হাহাকারে।” –দাঁড়িয়ে রয়েছ তুমি’
  • “নারীরা সবাই ফুলের মতন, বাতাসে ওড়ায়
    যখন তখন
    রঙিন পাপড়ি
    বাতাস তা জানে, নারীকে উড়াল দেয়ে নিয়ে যায়
    তাই আমি আর প্রকৃতি দেখি না,
    প্রকৃতি আমার চোখ নিয়ে চলে গেছে!” –‘চোখ নিয়ে চলে গেছে’  
  • “স্তব্ধ আঁধারে কিছুই যায় না দেখা
    হে আকাশ তবু ঊষার হৃদয় জ্বালো
    কোথায় গেল সে দৃষ্টি-পাগল একা
    খুঁজতে সে কোন আঁধার পারের আলো। – ‘রাত্রি’ 

আরও পড়ুন: জালালউদ্দিন রুমির 30 টি অসাধারণ বাণী বদলে দিতে পারে আপনার জীবন

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest