Budweiser বিয়ারে ভাটিখানা কর্মীর মূত্র! মিথ্যা ভাবছেন? জানুন সত্যিটা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

The News Nest: বাডওয়াইজার বিয়ার নিয়ে একটি পোস্ট সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলকালাম শুরু করেছে। যদিও তার দাবির সত্যতা কতখানি, তা নিয়ে সন্দেহের অবকাশ রয়ে গিয়েছে।

সম্প্রতি এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের রিপোর্টে প্রকাশ হয়েছে বিশ্বখ্যাত বিয়ার ব্র্যান্ড বাডওয়াইজার বিয়ার উৎপাদক সংস্থার এক কর্মীর চাঞ্চল্যকর স্বীকারোক্তি। তিনি দাবি করেছেন, গত ১২ বছর ধরে হামেশাই না কি তিনি কারখানার বিয়ার ট্যাঙ্কে প্রস্রাব করতেন।

আরও পড়ুন : এসে গেল দেশের প্রথম সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং বাইক ‘মিসো’, জেনে নিন দাম ও ফিচার

রিপোর্টে বলা হয়েছে, বাডওয়াইজার ব্রিউয়ারি এক্সপিরিয়েন্স (ফোর্ট কলিন্স, সি ও) সংস্থার কর্মী জন ওয়ার্নার (নাম পরিবর্তিত) জানিয়েছেন, ভাটিখানায় বিয়ারের ট্যাঙ্কে তিনি দিনের পর দিন প্রস্রাব করেছেন। সেই বিয়ারই পরে বোতল বা ক্যানে ভরে দোকানে ও পানশালায় গেছে। সেটাই আকণ্ঠ গিলেছে মদ্যপায়ীরা।

স্বীকারোক্তিতে জন ওয়ার্নার জানিয়েছেন, ‘অনেক সময় বন্ধুরা আমার কাছে বিয়ার খেতে চাইলে নিজেরই লজ্জা পেত। ব্যাপরারটা অনেকটা রাশিয়ান রুলেট খেলার মতো, কার ভাগ্যে যে কী আছে কেউ জানে না।’ তবে বিয়ার ছাড়া অন্য কোনও পানীয়ের ট্যাঙ্কে তিনি এই অপকর্ম করেননি বলে জানিয়েছেন পাওয়েল।

বাডওয়াইজার নিয়ে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য নিয়ে গত দিন কয়েক সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় হচ্ছে। অনেকে ভীষণ রেগে গেলেও কেই কেউ এরই মধ্যে হাসির খোরাক খুঁজে পেয়ে মিম বানাচ্ছেন। কিন্তু বিশ্বাস করার আগে বিষয়টি একটু খতিয়ে ভাবা দরকার।

খবরটি প্রথম প্রকাশিত হয় ‘ফুলিশ হিউমর’ অর্থাৎ বোকা বোকা কৌতুক নামের এক বিদেশি ওয়েবসাইটে। ওই ওয়েবসাইটে সাধারণ ভুয়ো খবর প্রকাশ করে মনোরঞ্জনের চল রয়েছে। খবরের সত্যতা সেখানে যাচাই করা হয় না বলে অনেক সময়ই ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশিত হয়। তা ছাড়া বাডওয়াইজার-এর তরফেও এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করা হয়নি।

আরও পড়ুন :  জেনে নিন নিষিদ্ধ হওয়া জনপ্রিয় ৬টি চিনা অ্যাপের ভারতীয় বিকল্প!

Gmail
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest