কেরলে মিলল আরও ৬ করোনা আক্রান্তের সন্ধান, দেশে মোট আক্রান্ত ৫৩

নয়াদিল্লি: ভারতে করোনার নয়া ঠিকানা মহারাষ্ট্রের পুনে। সেখানে আরও দু জন আক্রান্ত হল মারণ ভাইরাসে। পাশাপাশি কেরালায় আরও ৬ জনের দেহে মিলেছে এই ভাইরাস। এর ফলে ভারতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ৫৩।

পুনে পৌর কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য অধিকর্তা ডঃ রামচন্দ্র হানকারে জানিয়েছেন যে, সম্প্রতি দুবাই সফর সেরে দেশে ফিরেছেন এমন এক পুরুষ ও মহিলার রক্তের নমুনা পরীক্ষায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণের প্রমাণ মিলেছে। তিনি জানান, দু’জন রোগীই আপাতত পুর কর্পোরেশন পরিচালিত নায়ডু হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। পুনের জেলা শাসক নাভাল কিশোর রামও জানিয়েছেন যে, দু’জনই চলতি মার্চ মাসেই দুবাই থেকে পুনে এসেছিলেন। তিনি বলেন, “৬ মার্চ পর্যন্ত ওই দুই রোগীর শরীরে সংক্রমণের কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি। তবে পরে তাঁদের মধ্যে একজনের শরীরে করোনা ভাইরাসের প্রাথমিক লক্ষণ দেখা দিলে গত ৮ মার্চ তাঁরা আমাদের কাছে আসেন। তারপরেই তাঁদের রক্তের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়”।

আরও পড়ুন: মধ্যপ্রদেশ সঙ্কট: মোদী-শাহর সঙ্গে বৈঠকের পর কংগ্রেস ছাড়লেন জ্যোতিরাদিত্য,পতনের মুখে কমলনাথ সরকার

সোমবার ওই রক্ত পরীক্ষার রিপোর্টে দেখা যায় যে তাঁদের দেহে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে। রাম জানিয়েছেন যে ওই দুই রোগী একে অপরের আত্মীয়। এদিকে, পুনে পুর কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগ দ্বিমত পোষণ করে জানিয়েছে যে এক রোগীর মধ্যে করোনা ভাইরাসের হালকা লক্ষণ পাওয়া গেলেও এবং অন্য ব্যক্তির শরীরে এখনও কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি। স্বাস্থ্য বিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, “তবে দুজনকেই নাইডু হাসপাতালের পৃথক ওয়ার্ডে ভর্তি রাখা হয়েছে এবং তাঁদের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল”।

আরও পড়ুন:  করোনা আতঙ্ক: অসমে ৪০০ জনকে বিচ্ছিন্ন রাখল প্রশাসন

এদিকে কেন্দ্রীয় সরকার কেন্দ্রীয় সশস্ত্র পুলিশ বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছে যে করোনা ভাইরাসজনিত মামলার মোকাবিলা করার লক্ষ্যে দেশে ৫,৪০০ জনেরও বেশি মানুষকে আলাদাভাবে রাখার জন্য সুযোগসুবিধা ও পরিকাঠামো তৈরি করতে হবে। সোমবার সরকারি আধিকারিকরা এই খবর জানান। এই বাহিনীর মধ্যে রয়েছে কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স, বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স, সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্স, ইন্দো-তিব্বতী বর্ডার পুলিশ, সশস্ত্র সীমা বল এবং জাতীয় নিরাপত্তা বাহিনী। এই ভাইরাস যেভাবে ক্রমশই এদেশে ছড়িয়ে পড়ছে তাই এই বাহিনীদের ৭৫ টি পৃথক ওয়ার্ড তৈরি করে রাখার কথাও বলা হয়েছে। আধিকারিকরা বলেছেন যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক নিরাপত্তা বাহিনী গুলিকে দেশের ৩৭ টি স্থানে মোট ৫,৪৪০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কেন্দ্র তৈরি করার নির্দেশ দিয়েছে। পাশাপাশি বাহিনীকে ৭৫ টি পৃথক ওয়ার্ড নির্মাণ করতেও বলা হয়েছে।