খোশমেজাজে ‘রামায়ণ’-এ ডুবে জাভড়েকর, সোশ্যালে ভাইরাল হতেই ডিলিট করতে হল পোস্ট

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

নয়াদিল্লি: নোভেল করোনার প্রকোপে কাঁপছে গোটা দেশ। লকডাউনের জেরে নাকাল হচ্ছেন হাজার হাজার মানুষ। এমন পরিস্থিতিতে বাড়িতে বসে ‘রামায়ণ’ দেখার ছবি পোস্ট করে ট্রোলড হলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর। নেটাগরিকদের সমালোচনার মুখে পড়ে শেষমেশ ছবিটি মুছে দিতে বাধ্য হলেন তিনি।

আরও পড়ুন: পরিযায়ী শ্রমিকদের উপর পুলিশের অত্যাচার, ক্ষোভে ফেটে পড়লেন অনুরাগ কাশ্যপ

শুক্রবার ঘোষণা করেছেন, শনিবার বেলা ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত দূরদর্শনে রামায়ণ মেগা পুনঃপ্রচারিত হবে। নিজেই আনন্দ চেপে রাখতে পারেননি তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী।শনিবার সকাল ৯টা বাজতেই ছোটপর্দার সামনে বসে পড়েন তিনিও। সেই ছবি আবার ফলাও করে পোস্টও হয় সোশ্যালে। তাতে তিনি লেখেন, ‘‘আমি রামায়ণ দেখছি, আপনারা কী দেখছেন?’’

আর যায় কোথায়! নিমেষে সমালোচনায় কেন্দ্র হয়ে ওঠেন মন্ত্রীমশাই। অস্তিত্ত্ব সংকটে গোটা দেশ। করোনা ভয়ের পাশাপাশি রোজের খাওয়া-ওষুধ, শ্রমিকদের বাড়ি ফেরা—সব মিলিয়ে দুর্দশার শেষ নেই। এমন অবস্থায় কাজকম্মো শিকেয় তুলে মন্ত্রীর মেগা দর্শন! এই ছবি মোটেই ভালো মনে নেয়নি নেটবিশ্ব। ফলও হাতেনাতে। নেট নাগরিকদের প্রশ্ন, এবার তো মহাভারত, ব্যোমকেশ, সার্কাসও দেখানো হবে। তখনও কী এভাবেই ছোট পর্দায় মজবেন মন্ত্রী?

আরও পড়ুন: ‘ভাইরাস ছড়াও’, ফেসবুকে পোস্ট করে গ্রেফতার ইনফোসিস কর্মী, বরখাস্ত করল সংস্থাও

জাভড়েকরের সমালোচনা করে নিশান্ত ঝা নামের এক ব্যক্তি টুইটারে লেখেন, ‘‘না খেয়ে ঘুমোতে হচ্ছে আমাকে। আপনার লজ্জা হওয়া উচিত জাভড়েকর।’’ রাজীব জৈন নামের আর একজন লেখেন, ‘‘না খেতে পেয়ে ১১ বছরের রাহুল মুসাহরের মৃত্যু হয়েছে। ঠিক আছে। চলুন রামায়ণ দেখি জাভড়েকর।’’

আরও পড়ুন:Corona Outbreak: বন্ধ ত্রাণ শিবির থেকে ফের পোড়ো বাড়িতেই ফিরছেন দিল্লি হিংসার আর্তরা

এ ভাবে নেটাগরিকদের সমালোচনার মুখে টুইটার থেকে ছবিটি মুছে দেন জাভড়েকর। তার জায়গায় বাড়িতে বসে কাজ করার একটি ছবি পোস্ট করেন তিনি। তাতেও নতুন করে নেটাগরিকদের রোষে পড়েন জাভড়েকর। বৃথা তিনি মানুষকে বোকা বানানোর চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ করেন কেউ কেউ।

লকডাউনের মধ্যেই দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। এখনও পর্যন্ত একদিনে সর্বাধিক করোনা আক্রান্তের সন্ধান মিলল। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আরও ১৪৯ জন নতুন COVID-19 আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে।

আরও পড়ুন: স্মৃতির ঝাঁপি! রামায়ণ, মহাভারতের পর এ বার দূরদর্শনে ফিরছে ‘সার্কাস’, ‘ব্যোমকেশ’ও

 

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest