madhyamik 2022 and hs 2022 to be held in offline process

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে হবে স্কুলে গিয়ে, খসড়া প্রস্তাব গেল নবান্নে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

আগামী বছরের মাধ্যমিক–উচ্চমাধ্যমিক ফের খাতা-কলমেই নেওয়া হবে। তবে দিল্লি বোর্ডগুলির মত দু’দফায় নয়, একবারেই হবে পরীক্ষা। টেস্ট হবে কি না তা স্কুলগুলির উপর ছেড়ে দেবে রাজ্য সরকার। বুধবার স্কুলশিক্ষা দপ্তরে মধ্যশিক্ষা (Madhyamik) পর্ষদ ও উচ্চমাধ্যমিক (HS) শিক্ষা সংসদ এই প্রস্তাব পাঠিয়েছে। প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছে, আগামী বছর মার্চে মাধ্যমিক ও এপ্রিলে উচ্চমাধ্যমিক হবে। মুখ্যমন্ত্রীর সম্মতি মিললে রুটিন ঘোষণা করা হবে।

২০২২ সালের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা কীভাবে নেওয়া হবে তা নিয়ে বোর্ডগুলিকে খসড়া রিপোর্ট জমা দিতে বলেছিল রাজ্য সরকার। সেই রিপোর্ট জমা পড়েছে নবান্নে। তাতে জানানো হয়েছে, আগামী মার্চে হতে পারে মাধ্যমিক। উচ্চ মাধ্যমিক হতে পারে এপ্রিলে। ২টি পরীক্ষাই দিতে হবে খাতায় কলমে পরীক্ষার হলে বসে। তবে এক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় বোর্ডগুলির মতো সেমিস্টার পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেবে না রাজ্য। পরীক্ষা হবে একবারে।

শিক্ষা দফতর সূত্রের খবর, পরীক্ষা যে অফলাইন পদ্ধতিতেই হবে তা একেবারে পাকা। শুধু মুখ্যমন্ত্রীর ছাড়পত্র পাওয়া বাকি। সব ঠিক থাকলে জয়েন্ট এন্ট্রান্স হবে এপ্রিলের শেষে। আগামী ১৬ নভেম্বর থেকে রাজ্যে নবম ও দ্বাদশ শ্রেণির পঠনপাঠন শুরু হবে। তাই পরীক্ষার্থীদেরও কোনও সমস্যা হবে না বলেই মত বোর্ডগুলির।
সিবিএসই ও সিআইএসসিই বোর্ড দশম ও দ্বাদশস্তরের চূড়ান্ত পরীক্ষা অফলাইনে নেওয়ার ঘোষণা করেছে। পর্ষদ ও সংসদের কর্তারা মুখ খুলতে না চাইলেও নিশ্চিত করেছেন, সরকারি সিলমোহর মিললে ওই সময়েই ফের খাতায় কলমে দুই মেগা পরীক্ষা হবে। জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষা নেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে এপ্রিলের শেষে।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest