Kangana Ranaut Summoned By Delhi Assembly Panel Over Remarks On Sikhs

শিখদের অপমানের জের, কঙ্গনা রানাওয়াতকে সমন দিল্লি বিধানসভার

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

কৃষক আন্দোলনকে খালিস্তানি (Khalistani) বিক্ষোভের সঙ্গে তুলনা করায় মুম্বইয়ে (Mumbai) তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছিল এফআইআর (FIR)। এবার শিখদের নিয়ে মন্তব্যের অভিযোগে বলি অভিনেত্রী ‘কন্ট্রোভার্সি ক্যুইন’ কঙ্গনা রানাওয়াতের (Kangana Ranaut) বিরুদ্ধে সমন পাঠাল দিল্লি বিধানসভার (Delhi Assembly) শান্তি কমিটি।

দিল্লি বিধানসভার শান্তি ও সম্প্রীতি কমিটির তরফে ডেকে পাঠানো হয়েছে কঙ্গনা রানাউতকে। যে কমিটির পুরোধা আম আদমি পার্টির (AAP) বিধায়ক রাঘব চাড্ডা। তিনি জানান, অভিনেত্রীর এমন মন্তব্যের বিরুদ্ধে বহু অভিযোগ জমা পড়েছে। সেই প্রেক্ষিতেই সমন পাঠানো হয়েছে কঙ্গনাকে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় কৃষক আন্দোলন নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে শিখদের নিয়েও বিতর্কিত কথা বলেন অভিনেত্রী। যার জেরে সদ্য দিল্লি শিখ গুরুদ্বারা ম্যানেজমেন্ট কমিটির তরফে খর পুলিশ স্টেশনে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে কঙ্গনার বিরুদ্ধে। গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাসও দিয়েছে পুলিশ। সংশ্লিষ্ট কমিটির অভিযোগ, “শিখদের বিরুদ্ধে ইচ্ছে করেই অপমানজনক ভাষা ব্যবহার করেছেন কঙ্গনা। কিষাণ মোর্চাকে কখনও খালিস্তানি, কখনও বা সন্ত্রাসবাদী বলে আক্রমণ করেছেন। শুধু তাই নয়, এই আন্দোলনকে আশির দশকে ইন্দিরা গান্ধীর সময়কার জরুরী অবস্থার সঙ্গেও তুলনা করেছেন।”

ওই অভিযোগনামায় আরও উল্লেখ, “অভিনেত্রী বলেছেন, ইন্দিরা গান্ধী শিখ সম্প্রদায়কে পায়ের তলায় পিষে দিয়েছিলেন, যা ভীষণই অপমানজনক। গোটা বিশ্বের শিখদের ভাবাবেগে আঘাত লেগেছে।” সেই প্রেক্ষিতেই ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৯৫এ ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে কঙ্গনা রানাউতের বিরুদ্ধে। যার জেরে এখন মাশুল গুনতে হচ্ছে তাঁকে। দিল্লি বিধানসভা থেকে আগামী ৬ ডিসেম্বর ডেকে পাঠানো হয়েছে কঙ্গনাকে।

যদিও কঙ্গনা তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগকে পাত্তা দিতে রাজি নন। ন্যায়, নীতি, ভারতীয রীতি, নগ্নতা নিয়ে অন্য অভিনেত্রীদের জ্ঞান দিতে দেখা যায় তাঁকে। কিন্তু নিজের ইনস্টাগ্রামে প্রায়শই অর্ধনগ্ন ছবি পোস্ট করে থাকেন তিনি। এদিন ও তেমনি একটি ছবি পোস্ট করে লেখেন- “একটা নতুন দিন, একটা নতুন এফআইআর। …যদি ওরা আমাকে গ্রেপ্তার করতে আসেও… আমি কিন্তু বাড়িতে দারুণ সময় কাটাচ্ছি।”

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest