বান্ধবীকে সঙ্গে নিয়ে ‘হেনস্থা’, কাঞ্চন মল্লিক ও তাঁর বান্ধবীর নামে বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ স্ত্রী’র

তাঁদের দাম্পত্য জীবন নিয়ে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল বেশ কিছু দিন ধরেই। এ বার সরাসরি অভিনেতা তথা সদ্য বিজয়ী তৃণমূল বিধায়ক কাঞ্চন মল্লিকের বিরুদ্ধে নিউ আলিপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করলেন তাঁর স্ত্রী পিঙ্কি। কাঞ্চনের বান্ধবী তথা অভিনেত্রী শ্রীময়ী চট্টরাজের বিরুদ্ধেও অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। পিঙ্কির অভিযোগ, তাঁকে মানসিক নির্যাতন করেছেন কাঞ্চন। মত্ত অবস্থায় গালিগালাজ করেছেন। শুধু তাই নয়, নিজের বান্ধবীকে সঙ্গে নিয়ে কাঞ্চন গাড়ি থেকে তাঁকে নামিয়ে হেনস্থা করেছেন বলেও অভিযোগ করেছেন পিঙ্কি।

সংবাদমাধ্যমে পিঙ্কি জানিয়েছেন, ‘আমি বাধ্য হলাম থানায় অভিযোগ জানাতে। আমাকে ট্রমাটাইজড করা হচ্ছে’। কাঞ্চন পত্নীর দাবি, শনিবার পিঙ্কির নিউ আলিপুরের বাড়িতে চড়াও হন কাঞ্চন। সেই সময় বাড়িতে ছিলেন না পিঙ্কি, এরপর তাঁর চেতলায় অবস্থিত বাড়িতে হাজির হন কাঞ্চন ও শ্রীময়ী। সেখানে গাড়িতে উঠবার সময় পিঙ্কিকে নাকি শারীরিকভাবে হেনস্থা পর্যন্ত করেন শ্রীময়ী। ‘তোকে আমি দেখে নেব, তুই কে? চিত্কার করে এ কথা বলতে বলতে আমার  উপর চড়াও হয় শ্রীময়ী’, জানান পিঙ্কি। গোটা পরিস্থিতি থেকে তাঁর আট বছরের ছেলে চিত্কার করে কান্না জুড়ে দিয়েছিল, যা দেখে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন পিঙ্কি।

আরও পড়ুন: পাহাড়ে দাঁড়িয়ে বেবি বাম্প ফ্লন্ট করলেন নুসরত, দিলেন ‘উদারতা’র বার্তা

পিঙ্কির অভিযোগ, সংবাদমাধ্যমে কাঞ্চন মল্লিকের সঙ্গে শ্রীময়ী চট্টরাজের সম্পর্ক নিয়ে লেখালেখি হতেই নাকি দুজনে মিলে হেনস্থা করছেন পিঙ্কিকে। কেন সংবাদমাধ্যমের কাছে নিজেদের দাম্পত্য সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেছেন পিঙ্কি, তা নিয়েই কাঞ্চন জবাবদিহি চান। পিঙ্কির দাদা তথা কাঞ্চনের শ্যালক স্পষ্ট জানান, ‘পিঙ্কি সংবাদমাধ্যমে ওঁদের সম্পর্কের কথা জানায়নি। ওঁরা নিজেরা এতোদিন বেলুনে হাওয়া দিয়েছে, আর এখন বেলুন ফেটে গেছে সেটা নাকি পিঙ্কির দোষ’।

নিউ আলিপুর থানা ইতিমধ্যেই গোটা ঘটনা বিস্তারিত তদন্ত করে দেখছে, তবে গোটা ঘটনা নিয়ে কাঞ্চন মল্লিকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে হলেও তাঁকে ফোনে পাওয়া যায়নি। দু-দিন আগেই শ্রীময়ীর সঙ্গে নিজের প্রেম সম্পর্ককে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন উত্তরপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক।

আরও পড়ুন: পাহাড়ে দাঁড়িয়ে বেবি বাম্প ফ্লন্ট করলেন নুসরত, দিলেন ‘উদারতা’র বার্তা