জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিয়ে রাম মন্দির তৈরির অনুদান চাইলেন মোদির ইন্টারভিউ নেওয়া অক্ষয় কুমার

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

গত ৫ অগস্ট করোনা কালেই অযোধ্যায় গিয়ে রাম মন্দিরের (Ayodhya Ram Mandir) ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। সম্প্রতি শুরু হয়েছে সেই মন্দির নির্মাণের জন্যে অর্থ সংগ্রহের কাজ। আর প্রথমেই চাঁদা দিয়ে তার সূচনা করেছেন দেশের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ (Ramnath Kovind)। এবার মন্দির স্থাপনের জন্যে অনুদানের আহ্বান জানিয়ে এগিয়ে এলেন বলিউড অভিনেতা অক্ষয় কুমার (Akshay Kumar)। নিজের সোশ্যাল পেজে একটি ভিডিও শেয়ার করে সেই বার্তা দিলেন মোদির ইন্টারভিউ নেওয়া এই অভিনেতা।

বিদেশি অর্থ বা বিদেশি অনুদানের প্রয়োজন নেই। রাম মন্দির তৈরি হবে দেশের মানুষের টাকা দিয়েই। শ্রী রাম জন্মভূমি তীর্থ ক্ষেত্র ট্রাস্টের পক্ষ থেকে আগেই এমনটা ঘোষণা করা হয়েছে। ট্রাস্ট জানিয়েছে, বাড়ি বাড়ি গিয়ে টাকা তোলা হবে। চাঁদা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: ‘জয় বাংলা’ ডাক দিয়ে শিবসেনার বঙ্গে পা! ভাগ হয়ে যাবে কি সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোট?

বিদেশি অনুদান নেওয়ার ব্যাপারে আপত্তি রয়েছে ট্রাস্টের। কোনও ভাবেই কোনও বিদেশি অর্থ মন্দির তৈরিতে ব্যবহার করা হবে না। সে বিষয়ে স্পষ্ট করে দিয়েছেন শ্রী রাম জন্মভূমি তীর্থ ক্ষেত্র ট্রাস্টের জেনারেল সেক্রেটারি চম্পত রাই। গত শুক্রবার রাম মন্দির নির্মাণের জন্যে রাম মন্দির ট্রাস্টের হাতে ৫ লাখ টাকার চেক তুলে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। এবার এগিয়ে এলেন অক্ষয় কুমার।

কিছুদিন আগেই সামনে এসেছে অক্ষয় কুমারের পরবর্তী ছবি ‘রাম সেতু’ (Ram Setu)-র পোস্টার। যেখানে প্রশ্ন তোলা হয়েছে রাম সত্যি নাকি কল্পনা? অক্ষয় নিজেই শেয়ার করেছিলেন ছবির পোস্টার। জানিয়েছেন আগামী দীপাবলিতে আসছে ছবিটি। এরপর তিনি দেখা করেছিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের (Yogi Adityanath) সঙ্গে। শোনা গেছে সেই মিটিংয়ের পর অযোধ্যা ভূমিতেই হবে ছবির শুটিং।

আম কেমন করে খান? কেটে না কী চুষে ? ব্যক্তিগত সাক্ষাৎকারে এই প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীকে করেছিলেন ‘খিলাড়ি নম্বর ওয়ান’। কেউ কেউ আড়ালে আবডালে বলেন, ইনি হলেন ‘বলিউডের অর্ণব গোস্বামী’। অর্ণবের টিআরপি কেলেঙ্কারি সামনে এসেছে।দেশের নিরাপত্তার খবর নিয়েও কীভাবে ‘হিন্দু জাতীয়তাবাদী’ এই সঞ্চালক ‘ধান্দা’ করেছেন তা জনগনের সামনে এসেছে।কিন্তু তাতে কি! বিজেপির আইটি সেলের বেতনভুক লোকেরা হিন্দুদের ম্যানেজ করে নেবে। এমনটাই ধারণা অর্ণবপন্থী, বিজেপিপন্থী এবং বিদ্বেষপন্থী লোকজনের।

আরও পড়ুন: কে ডি সিংয়ের মুখোমুখি বসিয়ে জেরা! আরও ১৫ জনকে জেরা করতে পারে ইডি

 

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest