ভারতীয় ক্রিকেট দলের ‘ফার্স্ট লেডি’ কি অন্তঃসত্ত্বা! নিজেই মুখ খুললেন অনুষ্কা

ওয়েব ডেস্ক: বিয়ের পর থেকেই বিরাট এবং অনুষ্কার সম্পর্কের রসায়ন বারবার এসেছে খবরের শিরোনামে। শুধু যে সেলেব দম্পতি বলে, তা নয়। নজর কেড়েছে তাঁদের একে অপরের প্রতি ভালবাসা, বিশ্বাস, সম্মান প্রদর্শনের একাধিক মুহূর্ত। তবে এসবের সঙ্গে সঙ্গেই বারবার গুঞ্জন উঠেছে অনুষ্কার মা হওয়ার খবর নিয়ে। কখনও হেসে উড়িয়েছেন তো কখনও দৃঢ় কণ্ঠে প্রতিবাদ করেছেন অভিনেত্রী। এবার ফের সেই একই গুঞ্জন শোনা গেল। তবে ব্যাপারটা এবার একটু সিরিয়াস। সত্যিই কী ভারতীয় ক্রিকেট দুনিয়ার ফার্স্ট লেডি অন্তঃসত্ত্বা? মুখ খুললেন খোদ অনুষ্কা।

সম্প্রতি এ প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন খোদ অনুষ্কা। একটি সাক্ষাৎকারে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে চরম বিরক্তির সুরেঅনুষ্কাকে বলতে শোনা যায়, “হ্যাঁ, আপনি যদি বিবাহিত হন তা হলে লোকে জিজ্ঞাসা করবেই আপনি অন্তঃসত্ত্বা কি না! যেটা হয়নি সেটা পড়তে মানুষ সত্যি ভালবাসে। মানুষের উচিত তারকাদেরও স্বাধীন ভাবে বাঁচতে দেওয়া।” এখানেই থামেননি অনুষ্কা। তিনি আরও বলেন, “যখন কোনও অভিনেত্রী বিয়ে করে, তার পরই প্রশ্ন উঠতে শুরু করে, সে অন্তঃসত্ত্বা কি না? একই ভাবে যখন কেউ কারও সঙ্গে ডেট করে, তখন বলা হয় বিয়েটা কবে করবে! এটা খুবই বিশ্রী ব্যাপার। আমাদেরও স্বাধীন ভাবে বাঁচতে দিন। আমার সব থেকে বিরক্ত লাগে যখন এগুলো মানুষকে বারে বারে বোঝাতে হয়। এই ব্যাখ্যা ব্যাপারটা আমার একেবারেই পছন্দ নয়। আমার কী দরকার সবাইকে ব্যাখ্যা দেওয়ার!”

অন্যদিকে, কিছুতেই রোহিত বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না কোহলি দম্পতির।সম্প্রতি এক মোহময়ী লুকে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হন অনুষ্কা। হাল্কা আকাশি ম্যাট ফিনিশ রংয়ের ফ্লোরাল প্রিন্টের শাড়ি। কানে ভারী ঝুমকো। পারফেক্ট মেকআপ, মুখে স্মিত হাসি। তাঁর নয়া স্টাইলের প্রশংসায় মেতেছেন নেটিজেনরাও। টুইটারের কমেন্ট বক্সে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অনেকেই।কিন্তু শেষ পর্যন্ত নেটিজেনদের বিরূপ মন্তব্য থেকে রেহাই পেলেন না অনুষ্কা। সঙ্গে জুড়ল বিরাটের নামও।

কেউ বললেন, আমার স্ত্রী-ও সুন্দর দেখতে। তা বলে এ ভাবে শো অফ করে বেরাই না। কেউ বা অনুষ্কাকে উদ্দেশ করে বললেন, কদিন আগে রাস্তায় জঞ্জাল ফেলা নিয়ে এক দম্পতিকে ধমক দিয়েছিলেন। নিজে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেটা করা বন্ধ করুন। কেউ বা লিখেছেন, রোহিত শর্মা আপনাকে আনফলো করে দিয়েছেন। যান আগে ওকে গিয়ে সরি বলুন। তারপর নিজের ছবি আপলোড করবেন। অনেকেই আবার মজা করে বলেছেন, রোহিত আর ঋতিকাকে রাগানোর জন্যই নাকি নিজের এই ছবি শেয়ার করেছেন অনুষ্কা।

anu2

কদিন আগেই শুরু হয়েছে বিরাট-রোহিতের ইনস্টাগ্রাম বিতর্ক। অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে আনফলো করে দেন রোহিত। সম্প্রতি বিরাটের স্ত্রী অনুষ্কা শর্মাকেও আনফলো করেছেন এই মুম্বইকর। অন্যদিকে বিরাট এখনও রোহিতকে ইনস্টাগ্রামে ফলো করলেও আনফলো করে দিয়েছেন রোহিতের স্ত্রী ঋতিকাকে। আর এই ডুয়েলে জড়িয়ে পড়েছেন দুই তারকার স্ত্রীরাও। বিশ্বকাপের পরে রোহিত ও ঋতিকা দু’জনকেই আনফলো করে দিয়েছেন অনুষ্কা। একই কাজ করেছেন ঋতিকাও। তিনি আনফলো করে দিয়েছেন বিরাট ও অনুষ্কাকে। আর এই আনফলো নিয়েই জল্পনা আরও বেড়েছে দলের মধ্যে। যদিও গতকাল বিরাট কোহলি জানিয়েছেন, তাঁর ও রোহিতের মধ্যে কোনো সমস্যা নেই। তবুও কাটছে না বিবাদের জল্পনা।