এই মৃত্যু উপত্যকা আমার দেশ নয়… রহস্য জিইয়ে রেখে মুক্তি পেল ‘ড্রাকুলা স্যার’ -এর ট্রেলার

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

‘রক্তপান স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক’। এমনই ক্যাপশনে পোস্টার প্রকাশ করে দর্শকদের একপ্রকার চমকে দিয়েছিলেন ‘ড্রাকুলা স্যার’-এর নির্মাতারা। সেই চমক অব্যাহত রেখে রবিবার মুক্তি পেল বহু প্রতীক্ষিত ‘ড্রাকুলা স্যার’-এর ট্রেলার। যেখানে নিজ নিজ ভূমিকায় দর্শকদের চমকে দিলেন অনির্বাণ, মিমি ও রুদ্রনীল, বিদিপ্তা।

ড্রাকুলা নিয়ে হলিউডে ছবি হয়েছে প্রচুর। কিন্তু টলিউডে সে সাহস এখনও পর্যন্ত কোনও পরিচালকই দেখাননি। তবে পরিচালক দেবালয় ভট্টাচার্য এক্কেবারে সেটাই করে দেখালেন। ট্রেলারে অনির্বাণ ধরা দিয়েছেন অন্ যরূপে। তাঁর চরিত্রটি একজন প্রাইমারি স্কুল শিক্ষকের। সে খানিক অগোছালো। বুদ্ধিদীপ্ত দু’টি চোখে প্রচ্ছন্ন আতঙ্ক। চরিত্রের নাম অমল। বাইরের দিকে ঠেলে বেরিয়ে আসা দুটো ক্যানাইনের জন্য ছাত্রছাত্রীদের কাছে তিনি ‘ড্রাকুলা স্যর’ হিসেবে পরিচিত।  অন্য দিকে মিমির চরিত্রের নাম মঞ্জরী। লম্বা খোলা চুল, কপালে কালো টিপ আর শাড়িতে আরও একবার ‘গানের ওপার’-এর নস্টালজিয়া উস্কে দিয়েছেন নায়িকা।

আরও পড়ুন: এবার পুজোয় একগুচ্ছ নতুন ছবি সিনেমা হলে আপনার অপেক্ষায়, জেনে নিন সম্পূর্ণ তালিকা

একজন ছাপোষা বাংলা শিক্ষকের রক্তপায়ী ড্রাকুলা হয়ে ওঠার গল্প বলবে কি ‘ড্রাকুলা স্যর’? ধীরে ধীরে গল্প যত এগিয়েছে ততই যেন রহস্য জমাট বেঁধেছে। না পাওয়া প্রেম, একাকিত্ব, অতীত-বর্তমান সব কিছু মিলেমিশে এক হয়ে গিয়েছে ১মিনিট ৫৮ সেকেন্ডের ট্রেলারে। রহস্যের মোচড়ের কোনও খামতি নেই। এই ছবির সুবাদেই  এই প্রথম দর্শক উপহার পেতে চলেছে মিমি-অনির্বাণ জুটিকে। এর আগে ‘ধনঞ্জয়’ ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন মিমি এবং অনির্বাণ (Anirban Bhattacharya)। তবে তাঁদের স্ক্রিন শেয়ার করতে দেখা যায়নি। ‘ড্রাকুলা স্যার’এ এক ফ্রেমে ধরা দিলেন তাঁরা।

ছবির ট্রেলার টুইটারে শেয়ার করেছেন মিমি চক্রবর্তী। লিখেছেন, ” এক জোড়া দাঁতের ইতিহাস,আর সেই ইতিহাসে নিজেকে খুঁজে পাওয়ার গল্প…”

 

আনলকের নিয়ম অনুযায়ী ১৫ অক্টোবর খুলছে সিনেমা হল। এই পুজোতেই মুক্তি পাচ্ছে ‘ড্রাকুলা স্যর’। ছবিটির প্রযোজনায় শ্রীভেঙ্কটেশ ফিল্মস।

দেখুন ট্রেলার:

আরও পড়ুন: ‘ভালবাসি ভালবাসি…’ শেষ বেলায় ঠোঁটে ঠোঁট উজান -হিয়ার, মন খারাপ বাড়ছে দর্শকদের

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest