নাকফুলই হোক বা নথ, ক্যারি করা শিখুন ‘বং বিউটি’ স্বস্তিকার কাছে!

ওয়েব ডেস্ক:  এ দেশে নাকফুল শুধুই একটি গয়নার নাম নয়। স্মৃতিমধুর কিছু উদাস সময়েরও নাম। মায়ের নাকে দুপুরের রোদ পড়ে ঝিক করে ওঠা আলোর নাম নাকফুল। কিংবা পথের পাঁচালিতে দুর্গার আনমনে বলে যাওয়া ‘হলুদ বনে বনে, নাকচাবিটি হারিয়ে গেছে, সুখ নেইকো মনে’ ছড়া পড়ে উদাস হয়ে যাওয়া কিশোরীটির ছেলেবেলার নামও নাকফুল। আকৃতি, নকশা বা রং বদলে নাকফুল বারবার ঠাঁই করে নিয়েছে এ দেশের সাধের গয়নার তালিকায়। নতুন চেহারা আর ধারা নিয়ে নাকফুল এখন আবার জনপ্রিয়।

নথ বা নাকছবি হল এমন একটি ফ্যাশন অ্যাকসেসরি, যা চট করে পাল্টে দিতে পারে আপনার লুকটাই। আদতে এটি ভারতীয় হলেও, পশ্চিমি পোশাকের সঙ্গেও দিব্যি কায়দা করে পরা যায় এই নথ। ভারতের বিভিন্ন প্রদেশে নানা ধরনের, নানা ডিজাইনের নথের ব্যবহার আছে। কখনও তা বড়, কখনও ছোট, কখনও সনাতনী, কখনও আধুনিক…ইদানীংকালে এই অ্যাকসেসরিটি এতটাই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে যে, এর প্রেমে মজেছেন সেলেব্রিটিরাও! বলিউডের বিদ্যা বালন, সোনম কপূরই বলুন বা টলিউডের স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, নথ নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষায় পিছিয়ে নেই কেউই! তবে এঁদের মধ্যে আমরা আজ আলোচনা করব স্বস্তিকার নথ-নাকছবির ফ্যাশন নিয়ে। দেখে নেওয়া যাক, কীভাবে যে-কোনও লুকে এই নথ-নাকছাবি (Nosepin) আপনার ফ্যাশন (Fashion) কোশেন্টে সেই অতিরিক্ত ঊষ্ণতা জোগাবে!  

১. সনাতনী ডিজাইনের নাকছবি:

21910773 1721820631214616 3362744064582615040 n

এই ধরনের ডিজাইন সোনালি রংয়ের হলেই ভাল। সোনার তৈরিও হতে পারে, আবার ইমিটেশন নাকছাবিও হতে পারে। তবে ট্র্যাডিশনাল সাজ, মানে, শাড়ি কিংবা সালোয়ার-কামিজের সঙ্গেই এরকম নাকছাবি মানাবে। সঙ্গে বাকি গয়নাও পরতে হবে মানানসই করে।

২. মরাঠী স্টাইলের নথ

47498335 749975042035579 5766000321124311049 n

এটি মূলত মরাঠী মহিলারা পরলেও আজকাল ফ্যাশনে দারুণ ইন এই নথ! সাধারণত সোনা, মুক্তো ও লাল-সবুজ পাথর দিয়ে তৈরি হয় এই সাবেকি নথ। এককালে নাক বেঁধানো না হলে এই নথ পরাটাই সম্ভব ছিল না। কিন্তু এখন ফলস নথও পাওয়া যায়। স্বস্তিকার মতো কায়দা করে পরতে পারলে ভারতীয় এবং পশ্চিমি, যে-কোনও সাজেই মানিয়ে যাবে এই ধরনের নথ!

আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্ক! ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শুটিং বন্ধ করতে আসতে চলেছে নয়া নির্দেশিকা?

৩. অক্সিডাইজড নাকছাবি

51787269 1591716340930769 3582917852691104374 n

এটিই বোধ হয় হালফিলের সবচেয়ে চালু নাকছাবি ডিজাইন। জিঙ্ক অক্সাইড, জার্মান সিলভার কিংবা রুপোর তৈরি নানা রকমের, নানা সাইজে পাওয়া যায় এই ধরনের নাকছাবি। একেবারে ছোট্ট, পাথরবসানো, মিনে করা, অক্সিডাইজডের ডিজাইন করা…যেরকম আপনার পছন্দ ও রুচি, সেরকম নথই বেছে নিন। স্বস্তিকা এখানে পরেছেন ডাবল লেয়ারড নথ, যাতে হালকা লাল মিনে করা আছে।

৪. বোতাম নাকছাবি

64330064 2356206161369502 7827205889772770190 n

সত্যি কথা বলতে গেলে, এরকম নাকছাবিই বরাবর বাঙালি পরিবারে পরা হত। নাকের উপর ছোট্ট একটা বোতামের মতো বসে থাকে এই ডিজাইনের নাকছাবি। তাই এই নাম। এখন নানা ধাতু দিয়ে তৈরি হয় এগুলি, পাওয়া যায় সেমি প্রেশাস স্টোন বসানো নাকছাবিও।

৫. সনাতনী টানা নথ

42078445 2026578297409763 2454326712255993536 n

এটির আলাদা করে বিশ্লেষণ করতে যাওয়া দৃষ্টতা। বাঙালি মেয়েদের গয়নার বাক্সে এটির দেখা মিলবেই মিলবে। নিজের বিয়ে হোক বা পুজো, বন্ধু বা প্রিয়জনের বিয়েতে এটি ছাড়া স্টাইল অসম্পূর্ণ।

আরও পড়ুন: এক রাতের বান্ধবী, একাধিক সম্পর্ক, জন্মদিনে ফিরে দেখা নওয়াজের ‘অর্ডিনারি লাইফ’

Gmail 2