মধুচন্দ্রিমার জন্য গোছগাছ শুরু ‘তৃনীল’-এর! গন্তব্য কোথায়?

উইকএন্ডের শুরুতেই বায়না নীল ভট্টাচার্যের, ‘এক্ষুণি ছুটি চাই....।’

প্রেম দিবস, বিয়ে, রিসেপশন সব শেষ। জোরকদমে শ্যুটিংও শুরু হয়ে গিয়েছে মিঞাঁ-বিবির। কিন্তু মন লাগে কই কাজে?

উইকএন্ডের শুরুতেই তাই বায়না নীল ভট্টাচার্যের, ‘এক্ষুণি ছুটি চাই….।’ আবদারের পাশাপাশি তাঁর মন উধাও দার্জিলিংয়ে। যেখানে বিয়ের আগে বন্ধুদের নিয়ে কাটিয়ে এসেছেন ব্যাচেলর পার্টি। এ বার কি নতুন বৌ তৃণা সাহাকে নিয়ে আরেকবার ঘুরে আসতে চান? অরিজিৎ সিংহ-র ‘বস ২’-এ গান যেন অভিনেতার মনের কথা হয়ে ঠোঁটে উঠে এসেছে।রিল ভিডিয়ো দেখে সবার প্রথমে মন্তব্য করেছেন তৃণা স্বয়ং। রীতিমতো উস্কে দিয়ে বলেছেন, ‘গোছগাছ শুরু করব?’ উত্তরে নীল বলেছেন, ‘আমার জিনিসপত্রও প্যাক কর!’

আরও পড়ুন: এবার প্রসেনজিতের বাড়িতে BJP নেতা, অমিত শাহ নিয়ে বই উপহার, তুঙ্গে ‘গেরুয়া যোগের’ জল্পনা

যা দেখে শুরু হয় হানিমুন জল্পনা। মনে করা হচ্ছিল, এবার একান্তে সময় কাটাতে কোথাও পাড়ি দিচ্ছে এই লাভ বার্ড। কিন্তু আনন্দবাজার ডিজিটালকে তৃণা জানিয়েছেন, ‘‘আপাতত কোনও সুযোগই নেই মধুচন্দ্রিমার ! একে শ্যুটিং। তার পর নীলের ‘সোনার সংসার অ্যাওয়ার্ড’ অনুষ্ঠান আসছে। আমারও জোরকদমে শ্যুট চলছে। ‘খড়কুটো’ স্লট লিডার। বাংলার সেরা ধারাবাহিক। দম ফেলার ফুরসত নেই আমাদের।’’

আচমকা সুযোগ এসে গেলে কোথায় যাওয়া হবে? তিনটি জায়গা বেছে রেখেছেন তৃণা— গ্রিস, দুবাই, মলদ্বীপ। তিনটের কোনওটাই না হলে গোয়া বা উত্তরবঙ্গের পাহাড়! অভিনেত্রী জানিয়েছেন, ‘‘একমাত্র উত্তরবঙ্গ ছাড়া কোথাও ঝট করে যাওয়া যাবে না। গেলে হাতে সময় নিয়ে, গুছিয়ে যেতে হবে।’’

আরও পড়ুন: কালো বিকিনিতে গোয়ার সমুদ্র সৈকতে সানবাথ নিচ্ছেন রিয়া, পারদ চড়ালেন নেটমাধ্যমে…