Iraq Prime Minister Mustafa al-Kadhimi survives assassination bid with drones

বাসভবনে প্রাণঘাতী ড্রোন হামলা, অল্পের জন্য রক্ষা ইরাকে প্রধানমন্ত্রীর

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

বাগদাদে ইরাকি প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে ড্রোন হামলা হয়েছে রবিবার ভোরে। জানা গিয়েছে, বিস্ফোরক বোঝাই একটি ড্রোন বাগদাদে ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মোস্তফা আল-কাদিমির বাসভবনকে লক্ষ্য করে উড়ে আসে। প্রধানমন্ত্রী মোস্তফা আল-কাদিমিকে খুন করার চেষ্টা বলে ধরা হচ্ছে এই হামলাটিকে। তবে ইরাকি সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, কাদিমি অক্ষত অবস্থায় রয়েছেন। হামলার হাত থেকে তিনি বেঁচে গিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীর বিবৃতি উদ্ধৃত করে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম এই হামলার খবর দিতে গিয়ে জানিয়েছে, রবিবার সকালে তারা জোড়ালো বিস্ফোরণের শব্দ শোনেন। তারপরে শুরু হয় গুলি। অতর্কিত হামলায় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের নিরপত্তাকর্মীরা হতচকিত হয়ে পড়লেও দ্রুত তারা জবাবি হামলা জন্য তৈরি হয়ে যায়। সূত্রে পাওয়া খবরে জানা গিয়েছে, এই ঘটনার পর প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের নিরাপত্তা আরও কঠোর করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আল খাদিমির বাসভবনটি গ্রিন জোনে। সেখানে গুরুত্বপূর্ণ সরকারি দফতর এবং কূটনীতিকদের বাসভবন রয়েছে। সেই  গ্রিন জোনে নিরাপত্তাবলয় টপকে কী করে এতো বড়ো হামলা হল, তা নিয়ে ইতিমধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। এখনও পর্যন্ত কোনও জঙ্গি সংগঠন হামলার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দেয়নি।

সম্প্রতি গ্রিন জোন এলাকায় ইরানপন্থীরা প্রতিবাদ, বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছিলেন। সেই ঘটনার সঙ্গে রবিবারের হামলার কোনও যোগ আছে কি না  গোয়েন্দারা তাও খতিয়ে দেখছেন। সেনাবাহিনী বিবৃতি জারি করে জানায়, প্রধানমন্ত্রী অক্ষত রয়েছেন। খাদিমিও পরে তাঁর টুইটার হ্যান্ডেলে টুইট করে দেশবাসীকে শান্ত থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন। হামলার পরে পরে অবশ্য কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছিল, প্রধানমন্ত্রীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। কড়া ভাষায় হামলার নিন্দা করেছে আমেরিকা। সে দেশের বিদেশ দফতরের মুখপাত্র নেড প্রাইস জানিয়েছেন, ‘এটা এক ধরনের সন্ত্রাসবাদী হামলা। আমেরিকা কড়া  ভাষায় বর্বরোচিত হামলার নিন্দা করে।‘

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest