Is it 2441139? Bella Bose is Anjan Dutt's timeless creation on the big screen

Anjan Dutta: এটা কি ২৪৪১১৩৯? বড় পর্দায় অঞ্জন দত্তের কালজয়ী সৃষ্টি বেলা বোস

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

দীর্ঘ দিন ধরে গুঞ্জন হচ্ছিল। এবার প্রায় নিশ্চিত হওয়া গেল। বড় পর্দায় আসতে চলেছে অঞ্জন দত্তের (Anjan Dutt) সৃষ্টি করা কালজয়ী চরিত্র বেলা বোস (Bela Bose)। যে সিনেমাটি আসতে চলেছে তার নাম এখনও নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি। তবে মনে করা হচ্ছে সিনেমাটির নাম হবে ‘বেলা বোসের জন্যে’ (Bela Bose Er Jonye)। বেলা বোসের সামাজিক ও রাজনৈতিক জীবন তুলে ধরা হবে ছবিতে।

স্ক্রিপ্ট এখনও লেখা শেষ হয়নি বলে সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন অঞ্জন। বলেছেন, “কিছু পুরনো গানকে এই সিনেমায় তুলে ধরা হবে। এবং বেলা বোসের যে আসল গানটি আছে তার সঙ্গেও কিছুটা সম্পর্কযুক্ত হবে চিত্রনাট্য। তা না হলে বিখ্যাত ফোন নম্বর ২৪৪১১৩৯ ফোন নম্বরটির গুরুত্ব থাকবে না। আমি এখনও স্ক্রিপ্ট লিখছি।”

এ রাজ্যের বাঙালি ছাড়িয়ে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের সংগীতপ্রেমী বাঙালির কাছে সেই গান ও চরিত্রটির জনপ্রিয়তা সাতাশ বছর পার করে আজও অমলিন। ‘বেলা বোস’।অঞ্জন দত্তের বেলা বোস। ২৪৪-১১-৩৯ নম্বরের ফোনের ওপারে বসা থাকা সেই বেলা বোসকে এবার বড়পর্দায় দর্শকদের সামনে আনতে চলেছেন অঞ্জন দত্ত স্বয়ং। আর বড়পর্দায় বেলা বোসকে আনার পিছনে যাঁর ইচ্ছে এবং সঙ্গত পরতে পরতে লেগে রয়েছে, তিনি এ ছবির প্রযোজক রানা সরকার।

কিন্তু এই যে এতবড় একটি আইকনিক চরিত্র যিনি বাস করেন নয়ের দশকের সমস্ত বাঙালির স্বপ্নে এবং কল্পনায়, তাঁকে বাস্তবে রূপ দেওয়ার এই কাজটা কি ভীষণ চ্যালেঞ্জিং নয়? খুবই কঠিন নয়? কোনও রাখঢাক না করে বেলা বোসের স্রষ্টার জবাব,’ ভীষণ কঠিন! তবে চ্যালেঞ্জটা আমি নিচ্ছি। ৬৬ বছর বয়সে এসেও যে এই চ্যালেঞ্জটা নিতে পারছি তার কারণ রানা সঙ্গে আছে বলেই।’

তা ঠিক কেমন হবে এই বেলা বোস? পরিচালকের কথায় জানা গেল ‘গায়ক’ অঞ্জনের গানে এতদিন বেলাকে যেমন ভেবে এমন জেনে এসেছে শ্রোতা, ছবির বেলায় বেলা সেরকম ন্যাকা একেবারেই নয়। গানে জানা গেছিল প্রেমিক চাকরি পাচ্ছিল না দেখে পরিবারের পছন্দে অন্য জায়গায় বিয়েতে রাজি হয়ে গেছিল সে। ছবিতে মোটেই সে ওরকম নয়। অঞ্জন আরও জানিয়েছেন সোশিও পলিটিক্যাল প্রেক্ষাপটে বেলাকে সম্পূর্ণ অন্যরকমভাবে হাজির করবেন তিনি। আর হ্যাঁ, এবারে কিন্তু সেখানে টেলিফোন থাকবে, তোলাও হবে এবং নানান চমকও থাকবে, দাবি বেলার স্রষ্টার! প্রেমও থাকবে, অবশ্যই থাকবে তবে তা সম্পূর্ণ নতুন এক মোড়কে পেশ করা হবে দর্শকের কাছে।

আরও পড়ুন: Monica, O My Darling: প্রথমবার একফ্রেমে রাজকুমার-হুমা-রাধিকা, সামনে এল ফার্স্ট লুক

গায়ক-পরিচালকের কাছ থেকে জানা গেল ২৪৪১১৩৯ নম্বরটা এক খবরের কাগজের অফিসের নম্বর ছিল। সেই কাগজের এডিটর রোজ এত ফোন পেতে লাগলেন বেলাকে একটিবার ডেকে দেওয়ার জন্য যে বাধ্য হয়ে রীতিমতো বিরক্ত হয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন তাঁরা। রেগে গেছিলেন স্রষ্টার বাবাও। বলেছিলেন পাবলিক নুইসেন্স অ্যাক্টে ছেলের শাস্তি হওয়া উচিত। এরপরে ক্ষমাও চেয়েছিলেন অঞ্জন। শেষে ওই ফোন নম্বর চিরতরের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তবে এবারে বেলাকে নিয়ে সেসব ‘ভুল’ যে আর তিনি করবেন না নিজের মুখে সেই কথা দিলেন তিনি।

তবে এই গানের জন্য এন্তার ভালোবাসা আর তারিফ কুড়োনোর পাশাপাশি ‘বেলা বোস’ সম্পর্কিত আরও একটি ঘটনা দারুণ অবাক করেছিল অঞ্জনকে। একবার এক দম্পতি তাঁকে দেখতে পেয়ে কাছে এসে জানিয়েছিলেন যে ‘বেলা বোস’ শুনেই তাঁদের প্রেম হয়েছে, বিয়েও। ‘একটা বিচ্ছেদের গান যে অসংখ্য মানুষের প্রেমের কারণ হতে পারে, দু’টি মানুষকে জুড়ে দেওয়ার কাজ করতে পারে তা দেখে অবাক হয়েছিলাম।’ উল্লেখ্য, ‘বেলা বোসের জন্য’ ছবির সুরকারের দায়িত্বে রয়েছেন নীল দত্ত। আর ‘বেলা বোস’ এর চরিত্রে? এখনই সেকথা বলতে নারাজ ছবির পরিচালক কিংবা প্রযোজক।

আরও পড়ুন: Yash-Madhumita: গুঞ্জনে সিলমোহর! ৮ বছর পর জুটি বাঁধছেন যশ ও মধুমিতা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest