থ্রিলারের পাকদণ্ডী বেয়ে সম্পর্কের উদযাপন, নতুন ছবির ঘোষণা করলেন শিলাদিত্য

নতুন ছবিতে হাত দিতে চলেছেন পরিচালক শিলাদিত‌্য মৌলিক। ‘সোয়েটার’-এর সাফল্যের পর তিনি ‘হৃদপিণ্ড’ নামের একটি ছবি করেন, যেটি বর্তমানে মুক্তির অপেক্ষায়। তবে দ্বিতীয় ছবি রিলিজের আগেই নিজের তৃতীয় ছবি ‘ছেলেধরা’র শুটিং শুরু করতে চলেছেন তিনি। যে ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে থাকছেন জয়া আহসান (Jaya Ahsan)।

অপহরণ, ক্রাইম থ্রিলারের পাকদণ্ডী বেয়েই আগামী ছবিতে ফের সম্পর্কের আরও একটি দিক উদযাপন করতে চলেছেন পরিচালক। মানুষের কাছে সন্তান স্পর্শকাতর জায়গা। এখানে দোষী এবং আক্রান্ত, দু’জনেরই পরিবার রয়েছে। এবং অপহৃত বাচ্চা মেয়েটি ভাঙা পরিবারের সন্তান। যার মা নিয়মিত মদ্যপায়ী। বড় পর্দার হালফিলের ট্রেন্ড মেনে থ্রিলার আর সম্পর্কের ককটেল? এক জবাবে সারলেন পরিচালক, ‘‘সম্পর্ক ছাড়া জীবন হয়?’’ তারপরেই ব্যাখ্যা, একটা সম্পর্কের অনেক শেড। প্রতি ছবিতে একটা করে দিক ধরলেও জীবন কাবার। ফলে, সম্পর্কের বাইরে আপাতত কিছুই ভাবছেন না তিনি।

“কিডন‌্যাপিংয়ের প্রেক্ষাপটে গল্পটা হলেও, এখানে যার বাচ্চা কিডন‌্যাপ হয়ে যায়, সেখান থেকে তার ‘পেরেন্টহুড’ শেখার সূত্রপাত। সন্তানকে খোঁজার জার্নিতে বুঝতে পারে, যে সে খুব খারাপ মা ছিল। সারাজীবন অন‌্যকে দোষারোপ করেছে, কিন্তু এই যাত্রাপথে নিজেকে খুঁজে পায় সেই মা। বুঝতে পারে নিজের দুর্বলতাগুলো। এর মধ্যেই বাচ্চা বদলের ঘটনাও আছে। মানে যে কিডন‌্যাপ করেছে তার বাচ্চা এই মায়ের কাছে চলে আসে, আর এই মায়ের বাচ্চাটি কিডন‌্যাপারের কাছে। একদিকে অভিভাবকত্বের উপলব্ধি, অন‌্যদিকে শৈশবের গল্প বলবে এই ‘ছেলেধরা’”, বলছেন পরিচালক শিলাদিত‌্য মৌলিক (Shieladitya Moulick)।

আরও পড়ুন: ‘টপলেস’! ফটোশুটের জন‍্য যে সব নায়িকারা ধরা দিয়েছেন বোল্ড অবতারে

এই প্রথমবার জয়ার সঙ্গে কাজ করতে চলেছেন শিলাদিত্য। জয়াকেই কেন বাছলেন? “জয়াদির একই অঙ্গে অনেক রূপ। গ্রাম্য-শহুরে আদবকায়দার মিশেল, গলার স্বর, সব মিলিয়ে ওঁকে ছাড়া মায়ের চরিত্রটার জন্য আর কাউকে ভাবতে পারিনি। এছাড়া অনেকদিন ধরেই ওর সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছা ছিল। ছবিটা দেখলে বোঝা যাবে জয়াদিকে কেন নিয়েছি,” বললেন শিলাদিত্য।

‘সোয়েটার’-এর পর আবারও শিলাদিত্যর ছবিতে কাজ করেছেন অনুরাধা। এই প্রথমবার কোনও মায়ের চরিত্রে দেখা যাবে তাঁকে। “একটি শিশুর সঙ্গে বন্ডিং গড়ে তুলে সেটাকে অভিনয়ের মাধ্যমে প্রকাশ করা খুবই চ্যালেঞ্জিং। আমার অভিনীত চরিত্রটির অনেকগুলো শেড থাকছে ছবিতে,” জানালেন অনুরাধা।

ইতিমধ্যে অর্পিতা চট্টোপাধ্যায়, সাহেব চট্টোপাধ্যায় ও প্রান্তিক অভিনীত ‘হৃৎপিণ্ড’ মুক্তির দোরগোড়ায়। প্রেক্ষাগৃহ খোলার অপেক্ষা করছেন পরিচালক। তবে ‘ছেলেধরা’র শুটিং এখনই শুরু হচ্ছে না। “জয়াদি এখন বাংলাদেশে। তাছাড়া ‘রোড সিনেমা’ বলতে যা বোঝায়, অর্থাৎ অপহরণকারীর পিছনে ধাওয়া করা, ‘ছেলেধরা’ অনেকটা সেরকম। শুটিং হবে পুরুলিয়া, জঙ্গলমহল অঞ্চলে। এদিকে একটু গুছিয়ে নিয়ে তারপর কাজ শুরু করব,” জানালেন শিলাদিত্য।

তবে সব কিছু ঠিক থাকলে পুজোর আগেই কলকাতার শুটিং সেরে নিতে চান পরিচালক। না হলে শুট হবে লক্ষ্মী পুজোর শেষে।

আরও পড়ুন: নেশায় বুঁদ বলিউড! মাদক দোষে অভিযুক্ত বহু তারকাই …