বলিউডের মেয়েরা সবাই ড্রাগখোর আর ছেলেরা ধোয়া তুলসী পাতা! মাদক কাণ্ডে পিতৃতন্ত্রকে বিঁধলেন মিমি

সুশান্ত (Sushant Singh Rajput) মামলায় মাদক যোগের তদন্ত নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের মত প্রকাশ করলেন অভিনেত্রী তথা তৃণমূল (TMC) সাংসদ মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty)। টুইটারে পিতৃতন্ত্রকে একহাত নিয়েছেন মিমি।

‘ধন্য পিতৃতন্ত্র। বলিউডে শুধুমাত্র মহিলারাই হ্যাশ, ড্রাগ ইত্যাদির খোঁজ করেন, আর বলিউডে যে সমস্ত ছেলেরা আছেন তাঁরা শুধুই রান্না করেন। মনের দিক থেকে শুদ্ধ। বাড়িতে বসে করজোড়ে অশ্রুসজল চোখে স্ত্রীয়ের জন্য প্রার্থনা করে বলেন, ভগবান ওঁকে রক্ষা করুন’। ড্রাগ তদন্তে বলিউডে পরপর শুধুমাত্র অভিনেত্রীদেরই নাম প্রকাশ্যে আসায় কটাক্ষ ভরে এমন ট্যুইট করলেন সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী।

আরও পড়ুন: OMG! বারোদিন আগে বিয়ে, হানিমুনে গিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ দায়ের পুনমের

 

গত ৮ সেপ্টেম্বর সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে উঠে আসা ড্রাগ প্রসঙ্গে এনসিবি দফতরে হাজিরা দিতে যাওয়ার সময় রিয়া চক্রবর্তীর পরনে ছিল কালো টি-শার্ট আর নীল ডেনিম। সেই টিশার্টের বার্তা ছিল পিতৃতন্ত্রের বিরুদ্ধে। সেই বার্তার বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায়, ‘গোলাপের রঙ লাল, বেগুনির রং নীল, পিতৃতন্ত্র নিপাত যাক, তুমি আর আমি’। এরপর ৯ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার হন রিয়া। কিন্তু মিডিয়া ট্রায়ালে তদন্তকারীদের দাবি পেশ করার আগেই তাঁকে দোষী বানিয়ে ফেলা হয়েছে। চরিত্র নিয়ে কাটাছেঁড়া রয়েছে।

অন্যদিকে, সুশান্ত মামলায় রিয়া চক্রবর্তীর (Rhea Chakraborty) গ্রেপ্তারির পর এখনও পর্যন্ত বলিউডের চার নারীর বিরুদ্ধেই সমন জারি করেছে নারকোটিক্স কন্ট্রোল বুরো। বৃহস্পতিবার সুশান্ত মামলায় মাদক যোগের তদন্তে শ্রুতি মোদি (Shruti Modi) এবং ফ্যাশন ডিজাইনার সিমোন খামবাটার (Simone Khambatta) বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে।

এনসিবির তালিকা থেকে এখনও বলিউডের অভিনেত্রীদের নাম বেরোলেও কোনও অভিনেতার নাম উঠে আসেনি। তিনটি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা রিয়াকে যেভাবে জেরা করছেন, তাতেও বলিউডের একাংশের মতে শুধুমাত্র মহিলা বলেই রিয়াকে এভাবে জেরা করা হচ্ছে। ড্রাগ যোগে বলিউড থেকে এখনও পর্যন্ত নিশানায় অভিনেত্রীরাই, যেখান থেকেই এমন তাৎপর্যপূর্ণ ট্যুইটটি করেছেন মিমি চক্রবর্তী।

আরও পড়ুন: বিলের বিরোধী কৃষকদের ‘জঙ্গি’ বলে কদর্য আক্রমণ কঙ্গনার, BJP – র নীরবতাকে কটাক্ষ শিবসেনার