‘ভোট শেষ এখন তো সব বন্ধ করবেই!’, গণতান্ত্রিক প্রহসনকে ‘কটাক্ষ’ মীরের

বঙ্গে মারাত্মক আকার নিয়েছে করোনা। শুক্রবার রাজ্য স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পক্ষ থেকে পশ্চিমবঙ্গে আংশিক লকডাউনের ঘোষণা করা হয়েছে। নবান্নের তরফে জারি করা হয়েছে একটি নোটিশ। তারই বিরোধিতায় আওয়াজ তুললেন জনপ্রিয় রেডিও জকি মীর আফসার আলি। সরকারকে কটাক্ষ করে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেন মীর। যা নিমেষে ভাইরাল হয়। প্রায় ১৮ হাজার মানুষ শেয়ার করেছেন মীরের ফেসবুক পোস্ট।

নবান্নের তরফে সেই সারকুলার জারি হওয়ার পরেই মীর ফেসবুকে পোস্ট করেছেন, ‘ভোট শেষ… এখন তো সব বন্ধ করবেই!’ অভিনেতা যে একেবারে ন্যায্য কথাই বলেছেন, তা নিয়ে কিন্তু কোনও দ্বিধা নেই নেটজনতাদের। অতিমারীর চরম প্রকোপেও ভোটের রঙ্গমঞ্চে নিত্যদিন বক্তৃতা দিয়ে গিয়েছেন নেতা-মন্ত্রীরা। জনসভায় সামাজিক দূরত্ব তো শিঁকেয় উঠেইছে, উপরন্তু যোগ দিতে আসা কর্মী-সমর্থকদের মুখে মাস্কটুকু দেখা যায়নি! ফলাফলের সাক্ষী রাজ্যবাসী।

আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু ‘কাবাডি কাবাডি’র টেকনিশিয়ানের,পজিটিভ কৌশিক গেলেন আইসোলেশন

বাংলায় হু-হু করে বেড়েছে সংক্রমণ। মানুষের জন্য ভোট, না ভোটের জন্য মানুষ, গত ১ মাসে তা ঠাহর করা একেবারে দায় হয়ে উঠেছিল। অনেকের মতে, এই করোনা পরিস্থিতিতে ভোট-রাজনীতি একটা গণতান্ত্রিক প্রহসন ছাড়া আর কিছুই নয়! যেখানে দিন দিন মারণ ভাইরাসের মাত্রাতিরিক্ত তাণ্ডব বেড়েছে, সেখানে দাঁড়িয়েও বন্ধ হয়নি রাজনৈতিক দলগুলির প্রতিশ্রুতি উপচে পড়া জনসভা। রাজ্যের শাসক দল কিংবা বাম শিবির যদিও আমজনতার কথা ভেবে শেষবেলায় প্রচার কর্মসূচী বাতিল করেছে, পদ্ম শিবিরের তরফে সেই সৌজন্যতাবোধটুকুও দেখা যায়নি!

বাংলায় করোনা পরিস্থিতির এমন বাড়বাড়ন্তের জন্য ৮ দফা নির্বাচনই (West Bengal Assembly Election 2021) যে দায়ী, সেই মর্মে এযাবৎকাল অনেকেই কমিশনকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন। তবে বৃহস্পতিবার ভোটের পালা সাঙ্গ হয়েছে। আর তারপরের দিনই শুক্রবার সন্ধে থেকে আংশিক লকডাউনের কড়াকড়ি নিয়ম লাঘু হল। সেই প্রেক্ষিতেই মীরের মন্তব্য, “ভোট শেষ, এখন তো সব বন্ধ করা হবেই।”

আরও পড়ুন: ঝরে গেল আরও এক তারা! প্রয়াত প্রখ্যাত সেতারশিল্পী পন্ডিত দেবব্রত চৌধুরী