জন্মদিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা-বার্তা ‘স্বামী’র, এড়িয়ে গেলেন ‘মোহর’

সোনামণি জানিয়েছেন এখন তিনি ‘সিঙ্গল’। তবুও বিচ্ছিন্না স্ত্রীর জন্মদিনে আদুরে শুভেচ্ছা বার্তা জানাতে ভুললেন না সুব্রত। 
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

কাগজে-কলমে এখনও স্বামী-স্ত্রী তাঁরা। যদিও পথ আলাদা হয়েছে সোনামণি সাহা ও সুব্রত রায়। এক বছরেরও বেশি সময় ধরে এক ছাদের তলায় থাকেন না তাঁরা, সোনামণি জানিয়েছেন এখন তিনি ‘সিঙ্গল’। তবুও বিচ্ছিন্না স্ত্রীর জন্মদিনে আদুরে শুভেচ্ছা বার্তা জানাতে ভুললেন না সুব্রত।

রবিবার ছিল মোহর অর্থাত্ সোনামণির জন্মদিন। আর এই বিশেষ দিনে সোনামণির সঙ্গে কাটানো পুরোনো দিনের ছবি পোস্ট করে ‘স্ত্রী’র উদ্দেশ্যে সুব্রতর বার্তা, ‘ভাল থেকো, আরও ভাল কাজ কর। অনেক বড় হও। আমার ভালবাসা সব সময় তোমার সঙ্গে থাকবে’। এই পোস্ট মারফত সুব্রত স্ত্রীকে জানতে চেয়েছেন, “আজকে মোমো খেয়েছ?” এই প্রশ্নের জবাব অবশ্য মেলেনি। কারণ সোনামণির দৃষ্টি এড়িয়ে গিয়েছে এই পোস্ট। সংবাদমাধ্যমের কাছে অভিনেত্রী এমনটাই জানিয়েছেন।

২০১৫ সালে মাত্র ১৮ বছর বয়সেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন সোনামণি। ডান্স কোরিওগ্রাফার সুব্রত রায়ের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল তাঁর। তবে প্রায় দেড় বছর ধরে সেপারেশনে রয়েছেন অভিনেত্রী। গত বছর সেপ্টেম্বরে বিতর্ক দানা বেঁধেছিল সোনামণির বিবাহিত নাকি অবিবাহিত সেই নিয়ে। এক সাক্ষাত্কারে নিজেকে সিঙ্গল বলে দাবি করলে ফেসবুকে প্রকাশ্যে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন তাঁর বিচ্ছিন্ন’ স্বামী সুব্রত রায়। সংবাদমাধ্যমকে দুষে নিজেদের বিয়ের ছবি পোস্ট করে ফেসবুক পোস্টও করেন তিনি।

আরও পড়ুন:  ফের কোভিড হানা বলিউডে! এবার আক্রান্ত ভিকি – ভূমি

সেই সময় সোনামণি নিজের বক্তব্য স্পষ্ট করে বলেন, ‘এখন আমি সত্যিই সিঙ্গল। আমার স্বামীর সঙ্গে আলাদা আছি। তাই জানিয়েছি আমি বিবাহিত নই’। পাশাপাশি তিনি দাবি করেন,  ‘আমি মুখ খুললে তো অনেককে জেলে যেতে হবে’।  ঠিক কি কারণে তাদের সম্পর্কে এমন দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছে তা অবশ্য স্পষ্ট নয়। সুব্রত রায় অর্থাৎ সোনামণির স্বামী র দাবি নিজেও তিনি জানেন না। তবে সোনামণির দাবি, নিতান্ত বাধ্য হয়েই শ্বশুর বাড়ি ছাড়তে হয়েছে তাকে। আপাতত ফেরার কোনও পরিকল্পনা নেই। শোনা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই ডিভোর্স ফাইল করেছেন সোনামনি।

গত বছর ফেব্রুয়ারিতে ‘দেবী চৌধুরানী’ কো-স্টার রাহুল মজুমদারের বিয়ের রিসেপশনেই শেষবার একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল সোনামণি ও সুব্রতকে। এরপর ক্রমেই দূরত্ব বাড়ে সম্পর্কে। অন্যদিকে প্রতীক সেনের সঙ্গে সোনামণির প্রেম সম্পর্কের গুঞ্জন মাসকয়েক ধরেই উড়ে বেড়াচ্ছে টলিপাড়ায়। এই নিয়ে সোনামণি কিছু না বললেও প্রতীককের দাবি পুরোটাই গুজব।

আরও পড়ুন: মুম্বই গিয়ে বিয়ে সেরে ফেললেন ঋতাভরী চক্রবর্তী!

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest