মোদীর বায়োপিকের প্রযোজকের সঙ্গে মাদক চক্রের যোগ! এবার CBI তদন্ত চাইল মহারাষ্ট্র সরকার

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে মহারাষ্ট্র পুলিশের বিরুদ্ধে। শিবসেনা ঘনিষ্ঠদের আড়াল করার অভিযোগও উঠেছে। তা নিয়ে এ বার পাল্টা গর্জে উঠল মহারাষ্ট্র সরকার। গোটা ঘটনায় প্রয়াত অভিনেতার বন্ধু তথা চিত্রনির্মাতা সন্দীপ সিংহের বিরুদ্ধে তদন্তের দাবি তুলল তারা।

২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের আগে ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’ ছবিতে টাকা ঢেলেছিলেন সন্দীপ। বিজেপির সঙ্গে তাঁর ভাল সম্পর্ক রয়েছে বলে মনে করেন বলিউডেরও একটা বড় অংশ। আবার সুশান্তকে মাদক সরবরাহেও তাঁর হাত ছিল বলে অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে।এই অবস্থায় বিজেপির সঙ্গে সন্দীপের যোগ সিবিআইয়ের খতিয়ে দেখা উচিত বলে দাবি করলেন মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ। তাঁর বক্তব্য, ‘‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জীবন নিয়ে ছবি করেছেন সন্দীপ সিংহ। বিজেপির সঙ্গে তাঁর কী সম্পর্ক, তা খতিয়ে দেখুক সিবিআই। একই সঙ্গে বলিউডের মাদক যোগ নিয়েও তদন্ত হোক। এ ব্যাপারে অনেক অভিযোগ পেয়েছি আমরা। সিবিআইকে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে অনুরোধ করব।’’

আরও পড়ুন: রক্তাক্ত ছবি পোস্ট করে ‘হবু মা’ অনুষ্কাকে শুভেচ্ছা! টুইটারে ট্রোলড ঋতাভরী

এরপরই রাজনৈতিক মহলের কটাক্ষ, বিজেপির তিরেই গেরুয়া শিবিরকে ঘায়েল করতে কোমর বাঁধছে মহারাষ্ট্রের জোট সরকার।বলাইবাহুল্য, বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে কেঁচো খুঁড়তে কেউটে বেরিয়ে এসেছে। বলিউডের মাদক যোগ নিয়ে তোলপাড় হচ্ছে গোটা দেশ। এনিয়ে বিজেপির অভিযোগ ছিল, মাদক যোগের অভিযোগ নিয়ে তদন্ত করেনি মু্ম্বই পুলিশ। এবার পালটা বিজেপিকেই সেই মাদক যোগেই মহারাষ্ট্র সরকার ঘায়েল করতে চাইছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

মহারাষ্ট্রের জোট সরকারে শরিক কংগ্রেসের মুখপাত্র শচীন সাওয়ান্ত বলেন,‘‘এই ঘটনায় বিজেপি যোগ তো রয়েইছে। মাদক যোগ নিয়ে ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’র প্রযোজকের বিরুদ্ধে তদন্ত করুক সিবিআই। এটা অত্যন্ত গুরুতর অভিযোগ। তার জন্যই কি সিবিআইকে আনার জন্য এত চাপ আসছিল? বলিউডে নামী প্রযোজকের তো অভাব নেই। তা সত্ত্বেও সন্দীপ সিংহের মতো এক জনকে মোদীর বায়োপিক তৈরি জন্য বেছে নেওয়া হল কেন?’’

বলিউড, মাদক এবং বিজেপির মধ্যে কী সংযোগ রয়েছে, তা খতিয়ে দেখতে মহারাষ্ট্র সরকারকে আর্জি জানিয়েছেন সচিন সাওয়ান্ত । তিনি বলেন, ‘‘বিজেপির সঙ্গে বলিউডের দহরম মহরমের কথা কারও অজানা নয়। প্রভাবসালী কাউকে আড়াল করতেই কি সিবিআইকে আনতে এত তৎপরতা শুরু হয়েছিল? সরকারের উচিত বিষয়টি খতিয়ে দেখা।’’

আরও পড়ুন: IMDb-তে সর্বনিম্ন রেটিং! লজ্জার রেকর্ড গড়ল Sadak 2…