NCP Leader and Maharashtra minister Nawab Malik alleges Aryan Khan was kidnapped for ransom

আরিয়ানকে অপহরণ করে ১৮ কোটি মুক্তিপণ, পরিকল্পনা ভেস্তে দেয় এক নিজস্বী!

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

মোটা মুক্তিপণের জন্য আরিয়ান খানকে অপহরণের চেষ্টা করা হয়েছিল। রবিবার এই বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন এনসিপি নেতা নবাব মালিক। এনসিবি তদন্তকারী সমীর ওয়াংখেড়ে অপহরণের ষড়যন্ত্রের অংশ ছিলেন বলেও দাবি মহারাষ্ট্রের মন্ত্রীর।  রবিবার সকালে সাংবাদিক বৈঠক করে নবাব অভিযোগ করেন, ‘আরিয়ান প্রমোদতরীর টিকিট কেনেননি। প্রতীক গাবা ও আমির ফার্নিচারওয়ালাই আরিয়ানকে ওখানে ডেকে আনেন।’ তার পরই নবাব বলেন, ‘‘আমি স্পষ্ট বলতে চাই, এটা একটা অপহরণ ও মুক্তিপণের ঘটনা।’’

বিস্ফোরক অভিযোগ করে নবাব বলেন, ‘‘বিজেপি নেতা মোহিত কম্বোজ ফাঁদ পেতেছিলেন। সেই পরিকল্পনামাফিক আরিয়ানকে সেখানে ডেকে আনা হয়। তার পর অপহরণ করে ২৫ কোটি টাকা মুক্তিপণ আদায়ের পালা। ১৮ কোটি টাকায় চুক্তি চূড়ান্ত হয়। তার মধ্যে ৫০ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু একটি নিজস্বী সব গোলমাল করে দিল।’’

আরও পড়ুন: Yash-Nusrat: আলোর উৎসবে নয়া রোশনাই! দুই ছেলের ছবি প্রকাশ্যে আনলেন যশরত

পর্যবেক্ষকদের অনুমান, গোসাভির সঙ্গে আরিয়ানের সেলফির দিকে ইঙ্গিত করছেন নবাব। গোটা ষড়যন্ত্রের মূল চক্রী হিসেবে নবাব বিজেপি নেতা মোহিত কম্বোজের নাম করেন। যে মোহিত শনিবার এনসিপি নেতা ঘনিষ্ঠ জনৈক সুনীল পাটিলকে মূলচক্রী হিসেবে দাবি করেছিলেন।

শনিবার আরিয়ান মাদক মামলায় এনসিপি নেতা সুনীল পাটিলের যোগ থাকার অভিযোগ করেছিলেন মোহিত কম্বোজ। সেই মোহিতকে মূলচক্রী হিসেবে অভিহিত করেছেন নবাব মালিক। তাঁর দাবি, মুক্তিপণ চক্রে কম্বোজের সঙ্গে যোগ ছিল সমীর ওয়াংখেড়ের। আসলাম শেখ-সহ একাধিক মন্ত্রীর সন্তানদের প্রমোদতরীতে নিয়ে গিয়ে মহারাষ্ট্র সরকারকে বদনাম করার পরিকল্পনা করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন: বিপাকে অভিনেতা সাহেব ভট্টাচার্য, থানার সামনে রাখা গাড়ি থেকে চুরি ব্যাগ, ATM কার্ড

 

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest