নাটকীয়! ফের একবার স্বামীর সঙ্গে সংসার পাততে তৈরি পুনম পাণ্ডে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

নিজের স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতেই সকলকে অবাক করে পুনম পাণ্ডে ঘোষণা করলেন, স্বামীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক আবার জোড়া লেগেছে। রবিবার স্যাম বম্বে ইনস্টাগ্রামে তাঁদের বিয়ের একটি ছবি পোস্ট করেন। তার পর থেকেই তাঁদের মিল হওয়ার জল্পনা শুরু হয়। সেই জল্পনাতেই সিলমোহর পড়ে যখন পুনম মুখ খোলেন। মুম্বইয়ের এক সংবাদমাধ্যমকে পুনম জানান, স্বামীর সঙ্গে সব কিছু ঠিক হয়ে যাওয়ায় তিনি ‘ভীষণ খুশি’।

সুর কিছুটা নরম করে পুনম বলেন, তাঁরা নিজেদের সমস্যা মিটিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে্ন। অনেকাংশে তা মিটেও গেছে। স্যাম স্ত্রীর সুরে সুর মিলিয়ে বলেন, এই পুরো বিষয়টি ভুল বোঝাবুঝি থেকে সৃষ্টি এবং তা অতিরঞ্জিত করে দেখানো হয়েছে। এখন সব কিছু মিটমাট করে তাই তাঁরা আবার ‘একসঙ্গে’। বিয়ের এক মাসের মধ্যেই যে সমস্যার জন্য তাঁকে থানার চৌকাঠ পেরোতে হয়েছে, তা এক রকম ভাবে ভুলেই গিয়েছেন স্যাম।

পুনমের কথায়, তাঁরা দু’জন দু’জনকে খুবই ভালবাসেন। সহজ ভাবেই প্রশ্ন রাখেন, “কোন বিয়েতে ওঠা-পড়া থাকে না বলুন তো?” স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন ওঠে, পরিবারের মধ্যস্থতায় কি ফের দু’জনের এক হওয়া? পুনমের স্পষ্ট উত্তর, “পরিবার খুবই গুরুত্বপূর্ণ,  কিন্তু আমাদের সমস্যা শুধু মাত্র আমরা দু’জনেই সামলেছি।” স্ত্রীর হাত নতুন করে শক্ত করে ধরে স্বামী স্যাম বম্বে জানালেন, “বিষয়টা অতিরিক্ত মাত্রায় পৌঁছে গিয়েছিল। তবে এখন সব ঠিক আছে।”

আরও পড়ুন: দীপিকা, সারা ও শ্রদ্ধার ক্রেডিট কার্ড বাজেয়াপ্ত করল এনসিবি, খতিয়ে দেখা হবে অ্যাকাউন্টও

উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগেই মধুচন্দ্রিমায় গিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ তুলেছিলেন পুনম। এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছিলেন, প্রায় দেড় বছর ধরে স্যাম বম্বের সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন তিনি। শুরু থেকেই অত্যাচার করতেন স্যাম। বিয়ে করলে সমস্ত কিছু ঠিক হয়ে যাবে। এমনটা ভেবেই সেপ্টেম্বরের ১১ তারিখ সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন। কিন্তু পরিস্থিতি আরও খারাপ হয় গোয়ায় মধুচন্দ্রিমায় যাওয়ার পর।

২৩ সেপ্টেম্বর রাতে অত্যাচার চরমে পৌঁছায়। যদিও পুনমের দাবি করেছিলেন, তিনি পুলিশকে ডাকেননি। হোটেলের ঘর থেকে চিৎকার-চেঁচামেচি শুনে কর্মীরাই গোয়া পুলিশকে (Goa Police) খবর দিয়েছিলেন। স্যাম নাকি নৃশংসভাবে তাঁকে মারধর করছিলেন। পুনমের মুখের একপাশ ফুলেও গিয়েছিল! মেডিক্যাল পরীক্ষার পর আবার পুনম জানতে পারেন মারের চোটে তাঁর ব্রেন হেমারেজ (Brain Hemorrhage) হয়ে গিয়েছে।

মঙ্গলবারই গ্রেফতার হন স্যাম। মঙ্গলবারই ইনস্টাগ্রাম থেকে তাঁর ও পুনমের যাবতীয় ছবি মুছে ফেলেন স্যাম। বুধবার অবশ্য ২০ হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে স্যাম জামিনও পেয়ে যান।

আরও পড়ুন: Happy birthday Mouni Roy: জন্মদিনে ফিরে দেখা ভাইরাল হওয়া কিছু ছবি…

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest