উন্মুক্ত বক্ষ, গলায় গণেশের লকেট, হিন্দু ভাবাবেগে ‘আঘাত’! ফের চর্চার কেন্দ্রে রিহানা

মার্কিনী পপস্টারের উন্মুক্ত বক্ষখাজের নীচে দেবতার মূর্তি দেখে রেগে আগুন ভারতীয় নেটজনতার একাংশ।

নগ্ন ঊর্ধ্বাঙ্গ। গলায় ঝুলছে একটি হার। লকেটে গণেশের মূর্তি। আমেরিকায় বসে পপ গায়িকা রিহানা ঝড় তুললেন ভারতে। এর আগে কৃষক আন্দোলনের সমর্থনে টুইট করায় সমালোচনার শিকার হয়েছিলেন তিনি। এ বারে হিন্দু ধর্মের ভাবাবেগে আঘাত করার অভিযোগ উঠল তাঁর দিকে। টুইটার জুড়ে নিন্দার জোয়ার।

দিন কয়েক আগেই ভারতের কৃষক আন্দোলন নিয়ে মুখ খুলে জোর বিতর্কে জড়িয়েছিলেন মার্কিনী পপ গায়িকা রিহানা (Rihanna)। বহিরাগত হয়ে কেন ভারতের আভ্যন্তরীণ ইস্যুতে নাক গলাচ্ছিলেন? ‘তথাকথিত দেশভক্ত’দের অনেকেই প্রতিবাদে সরব হয়েছিলেন তাঁর বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন: এখনও এককভাবে সরকার গঠনের দৌড়ে এগিয়ে তৃণমূল, পছন্দের মুখ্যমন্ত্রী মমতা : বলছে সমীক্ষা রিপোর্ট

তবে এবার, রিহানার বিরুদ্ধে অভিযোগ আরও ‘গুরুতর’! টপলেস ফটোশুটে হিন্দু ধর্মের দেবতা গনেশের লকেট ঝুলিয়েছেন তিনি। অতঃপর মার্কিনী পপস্টারের উন্মুক্ত বক্ষখাজের নীচে দেবতার মূর্তি দেখে রেগে আগুন ভারতীয় নেটজনতার একাংশ।

নিজের অন্তর্বাস সংস্থার জন্য ফোটোশ্যুট করেছেন রিহানা। মঙ্গলবার তার থেকেই একটি ছবি নিজের টুইটারে পোস্ট করেছেন পপ গায়িকা। ছবিতে দেখা যাচ্ছে, ঊর্ধ্বাঙ্গে কোনও পোশাক নেই। গলায় ঝুলছে গণেশের হার। নিম্নাঙ্গে রয়েছে বেগুনি রঙের স্যাটিনের ছোট প্যান্ট। গলার হার ছাড়াও কানে ও হাতে রয়েছে হিরের অলঙ্কার।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by badgalriri (@badgalriri)

ছবিটি পোস্ট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই নেটাগরিকদের চোখ পড়েছে তাঁর প্রোফাইলে। মুহূর্তে ভাইরাল সে ছবি। ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত হানার অভিযোগ তোলা হয়েছে রিহানার বিরুদ্ধে। কেউ লিখেছেন, ‘রিহানা! সৌন্দর্যের নাম করে আমার ধর্মকে ব্যবহার করা বন্ধ করুন! গলার চেনের তলায় একটি গণেশমূর্তি রয়েছে। আমাদের হিন্দুদের জন্য গণেশ এক পবিত্রতার প্রতীক’! কারও দাবি, ‘এ ভাবে গণেশের মূর্তি গায়ে দেওয়াটা ভীষণ আপত্তিকর! আমার প্রথম ভগবান ইনি। কোটি কোটি মানুষের প্রতি বছর গণেশ চতুর্থী উৎসব পালন করেন। তাঁদের জন্য পবিত্র আবেগ। দুঃখিত রিরি, আপনি আমাকে এবং আরও লক্ষাধিক মানুষকে নিরাশ করলেন এ ভাবে’!

গত ২ ফেব্রুয়ারি রিহানা একটি খবরের লিঙ্ক শেয়ার করেছিলেন টুইটারে। আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা ভারতের কৃষক আন্দোলন নিয়ে লিখেছিল। রিহানা সেই টুইটের ক্যাপশনে লিখেছিলেন, ‘এই বিষয়টা নিয়ে কেউ কোনও কথা বলছে না কেন’? তাঁর টুইটের পর একে একে বহু আন্তর্জাতিক তারকা কৃষক আন্দোলনের পক্ষে দাঁড়ান। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের দিকে অভিযোগের আঙুল তোলেন। সেই তালিকায় রয়েছেন পরিবেশ আন্দোলনকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ, মার্কিন লেখিকা আম্যান্ডা কের্নি, পর্ন তারকা মিয়া খালিফা, ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন কমেডিয়ান হাসান মিনহাজ, অভিনেতা জন কুস্যাক প্রমুখ।

আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির কাছে আদিগঙ্গায় নেমে প্রতিবাদ পার্শ্ব শিক্ষকদের, দড়ি নিয়ে টেনে তুলল পুলিস, ধৃত ৫