Sonam Kapoor: সোনম কাপুরকে দেবী চৌধুরানী করতে চেয়েছিলেন ঋতুপর্ণ ঘোষ!

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

আজ ৩৬-এ পা দিলেন সোনম কাপুর। অভিনয় ও ফ্যাশনেবল পোশাকে দর্শকদের চোখ ধাঁধিয়ে দেওয়া ছাড়াও নিজের ফিল্মি কেরিয়ারে মাঝেমধ্যেই ‘মিষ্টি মধুর’ মন্তব্যের জন্য বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন তিনি। চটিয়েছেন ঐশ্বর্য থেকে শুরু করে ঋষি কাপুরকেও। আবার সোনমের বেশ কিছু মজাদার সাক্ষাৎকারও ট্রেন্ডিং হয়েছিল সেই সময়ে। আসলে, বরাবরই নিজের খেয়ালখুশি মতন চলেছেন সোনম। নিজের যা ভালো মনে হয় করেছেন, নিজের বিবেচনায় যেটা ঠিক মনে হয় বলেছেন। তার ফলে অপর পক্ষ কী ভাবলো না ভাবলো তার পরোয়া কোনওদিনই তিনি করেননি।

তবে আপনারা জানেন কি দেবী চৌধুরানী ছবির লিড ক্যারেক্টার হিসাবে সোনম কাপুরকে পছন্দ কোরেক্সছিলেন প্রয়াত পরিচালক ঋতুপর্ণ ঘোষ। সম্প্রতি পরিচালকের ঘনিষ্ঠ বন্ধু দীপজ্যোতি চক্রবর্তী একথা জানিয়েছেন। বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের কালজয়ী উপন্যাস ‘দেবী চৌধুরানী’কে চলচ্চিত্রে রূপায়িত করার প্রস্তুতি শুরু করেছিলেন ঋতুপর্ণ ঘোষ। চিত্রনাট্য লেখার কাজ শুরু শুরু হয়ে গিয়েছিল। জীবিত থাকলে কয়েক দিনের মধ্যেই শিলিগুড়ি যাওয়ার কথা ছিল তাঁর। সেখান থেকে জলপাইগুড়িতে দেবী চৌধুরানীর মন্দির ও আশপাশের কিংবদন্তী এলাকাগুলি রেইকি করতে যাওয়ার কথা ছিল। তাঁর আচমকা জীবনাবসানে যা তাঁর সঙ্গেই কালের অতলে তলিয়ে যায়।

দেবী চৌধুরানী ছবির লিড ক্যারেক্টার তিনি বেছে ফেলেছিলেন। চরিত্রের জন্য প্রাথমিকভাবে তিনি সোনম কাপুরকে নিতে চেয়েছিলেন। ঘনিষ্ঠ মহলে তিনি সে কথা জানিয়েছিলেনও। অনিল কাপুরের কন্যার ঋজু চেহারা তাঁর ছবিতে নিজের আঁকা দেবী চৌধুরানীর সঙ্গে সবচেয়ে ভাল মানানসই হবে বলে তিনি মনে করেছিলেন। তবে সোনমের সঙ্গে এ বিষয়ে তার কথা হয়েছিল কি না, তা অবশ্য আর জানা যায়নি।

আরও পড়ুন: Dilip Kumar: শ্বাসকষ্টের সমস্যা, হাসপাতালে ভর্তি করা হল দিলীপ কুমারকে

শিলিগুড়িতে তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধু দীপজ্যোতি চক্রবর্তীকে তিনি প্রাথমিকভাবে জায়গাগুলি দেখে রাখতে বলেছিলেন। চিত্রনাট্য তৈরির কাজ শেষ হলেই শিলিগুড়ি গিয়ে এলাকা দেখে আসার কথা ছিল ঋতুপর্ণ-র। একইভাবে দক্ষিণবঙ্গের যে সমস্ত এলাকা উপন্যাসে উল্লেখিত আছে, সেগুলো জায়গাও তিনি দেখতে যাবেন বলে কথা ছিল।

দীপজ্যোতিবাবু জানান, বেশ কয়েকটি সিনেমা নিয়ে তাঁর সঙ্গে মৃত্যুর কয়েক দিন আগেই কথা হয়েছিল। তার মধ্যে, দেবী চৌধুরানী তার পরবর্তী প্রজেক্ট ছিল। এই সিনেমাটি নিয়ে তিনি অত্যন্ত আশাবাদী ছিলেন। এই উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে এটি সর্বকালের সেরা সিনেমা হতে পারত। তবে ব্রজেশ চরিত্রের জন্য তিনি কোনও বাঙালি অভিনেতাকেই কাস্ট করতে চেয়েছিলেন বলে ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিলেন।

আরও পড়ুন: মায়াবী খুনি! ‘মৌচাক’ ওয়েব সিরিজের ট্রেলারে সাহসী মনামী, দেখুন…

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest