মীরাক্কেল’-এর বিচারক হওয়ার দৌড়ে এবার উঠে এল নাম রুদ্রনীলও

জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ‘মীরাক্কেল’-এর অন্যতম সম্ভাব্য বিচারক হিসেবে এবার উঠে এল রুদ্রনীল ঘোষের নাম। গত বারো বছর ধরে এই শোয়ের বিচারকের দায়িত্ব পালন করেছেন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, রজতাভ দত্ত এবং শ্রীলেখা মিত্র। তবে ‘মীরাক্কেল’-এর পরবর্তী সিজ়নে থাকছেন না শ্রীলেখা। তাঁরই পরিবর্তে এবার দেখা যেতে পারে রুদ্রনীলকে।

শ্রীলেখার অভিযোগ, আচমকা বিনা নোটিসে না জানিয়ে তাঁকে ‘মীরাক্কেল’ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি। চ্যানেল ও প্রযোজনা সংস্থাকেও একহাত নিয়েছেন শ্রীলেখা। বেশ কিছুদিন আগে বাংলা চলচ্চিত্র জগতে ঘটতে থাকা স্বজনপোষণের ব্যাপারে মুখ খোলেন তিনি। জনসমক্ষে বেশ কয়েকজন নামকরা অভিনেতা, অভিনেত্রী ও প্রযোজকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনেন তিনি। শ্রীলেখা দাবি, সেই ‘সত্যি কথা’ বলার কারণেই ‘মীরাক্কেল’ থেকে তাঁকে বাদ দেওয়া হয়েছে । তাঁকে না জানিয়েই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে চ্যানেল। এতেই সবচেয়ে বেশি দুঃখ পেয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন: সুশান্তের অবসাদের কথা জানত তাঁর পরিবার! ফাঁস হল নতুন হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট

২০০৮ থেকে ‘মীরাক্কেল’-এর সঙ্গে যুক্ত শ্রীলেখা। ২০১৫-তে এই শোয়ের নবম সিজ়ন সম্প্রচারিত হয়। ‘মীরাক্কেল’-এর দশম সিজ়ন আসছে এ বছর। তবে নতুন বিচারাক হিসেবে যোগ দেওয়ার জন্য রুদ্রনীল ছাড়াও পাওলি দাম, নুসরত জাহান ও স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথাবার্তা চালাচ্ছে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ। সূত্রের খবর, আপাতত পাওলির দিকেই পাল্লা ভারি, যদিও তিনি এখনও সম্মতি জানাননি।

অন্যদিকে, শ্রীলেখার দাবি, শুধু ‘মীরাক্কেল’ নয়, বেশ কয়েকটি বিজ্ঞাপনের কাজ, সিরিজের কাজও হারিয়েছি একই সঙ্গে। তবু তেল দেওয়া তাঁর দ্বারা হবে না।নিজের শর্তেই কাজ করে যেতে চান না।

আরও পড়ুন: রক্তাক্ত ছবি পোস্ট করে ‘হবু মা’ অনুষ্কাকে শুভেচ্ছা! টুইটারে ট্রোলড ঋতাভরী