Samantha Akkineni reportedly refuses to take 200 crore alimony from Naga Chaitanya

Naga-Samantha: নাগার থেকে দু’শো কোটি টাকা খোরপোশের প্রস্তাব! ফিরিয়ে দিলেন সামান্থা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

দাম্পত্য বিচ্ছেদ ঘোষণা করেছেন সামান্থা প্রভু এবং নাগা চৈতন্য। এই অভিনেতা জুটির বৈবাহিক সম্পর্কে ভাঙনের জল্পনা গত কয়েকদিন ধরেই ছিল ইন্ডাস্ট্রিতে। অবশেষে তা সত্যি প্রমাণ করেছেন তাঁরা। এ বার নতুন আলোচনা শুরু। বিষয় খোরপোশ।

সামান্থা নাকি ৫০ কোটি টাকা খোরপোশ পেতে পারতেন নাগার থেকে। শোনা যাচ্ছে বিচ্ছেদের পর ভরণপোষনের জন্য সামান্থাকে ২০০ কোটি টাকা দিতে চেয়েছিলেন নাগা এবং তাঁর পরিবার। কিন্তু সামান্থা নাকি কোনও টাকা নিতে রাজি হননি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সূত্র দাবি করেন, এই বিয়ে ভাঙা সামান্থার কাছে হৃদয় বিদারক। অভিনেত্রী অত্যন্ত বিচলিত। এই সম্পর্ক থেকে  শুধুমাত্র ভালবাসা এবং সাহচর্য চেয়েছিলেন তিনি। এ ছাড়া আর কিছুর প্রয়োজন ছিল না তাঁর।

২০১০-এ একসঙ্গে ‘ইয়ে মায়া চেসভ’-এ কাজ করতে গিয়ে নাকি একে অপরের প্রেমে পড়েন সামান্থা এবং নাগা। ২০১৭-র জানুয়ারিতে তাঁদের এনগেজমেন্ট হয়। ওই বছরই অক্টোবরে গোয়াতে বিয়ে করেন তাঁরা। তাঁদের বিচ্ছেদে মন ভেঙে গিয়েছে বহু অনুরাগীর।

নাগা চৈতন্য অভিনেতা নাগার্জুন আকিনেনির পুত্র। বৈবাহিক সূত্রে এক সময় আকিনেনি পদবী ব্যবহার করতেন সামান্থা। কিন্তু কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের প্রোফাইলে সেই পদবী বাদ দিয়েছেন তিনি। তারপর থেকে নাগা চৈতন্যর সঙ্গে তাঁর বিচ্ছেদের জল্পনা আরও দৃঢ় হয় বিভিন্ন মহলে। সেই জল্পনার অবসান ঘটালেন অভিনেত্রী স্বয়ং।

সদ্য সামান্থা ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে লিখেছেন, ‘যখন হতাশা আমাকে ঘিরে ধরে তখন সব মসয় মনে রাখি সত্য এবং ভালবাসার পথ সব সময় জয়ী হবে। অদৃশ্য হয়ে অনেক অত্যাচারী বা খুনী হয়তো থাকবে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সকলেই পরাজিত হবে। এটা সব সময় ভাববে।’ হ্যাশট্যাগে তিনি ব্যবহার করেছে ‘মাই মম্মা সেড’-এর মতো তিনটি শব্দ। এই পোস্ট শেয়ার করার পরই অনুরাগীদের একাংশের মনে হচ্ছে, তা হলে কি নিজেই হতাশায় ভুগছেন অভিনেত্রী?

 

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest