প্রসূতিকে গ্রামে পৌঁছে ‘হিরো’ সোনু সুদ, অভিনেতার নামে সন্তানের নামকরণ করলেন পরিযায়ী শ্রমিক

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

মুম্বই: পরিযায়ী এক শ্রমিক পরিবারের গর্ভবতী মহিলাকে গ্রামে পৌঁছতে সাহায্য করেছিলেন সোনু সুদ। নিজের গ্রামে ফিরে কিন্তু এই সহৃদয় ব্যক্তিটির কথা ভুলে যাননি গর্ভবতী মহিলাটি। দিন কয়েকের মধ্যে সন্তান ভূমিষ্ঠ হতেই সোনু সুদের নাম অনুসারে সন্তানের নাম রাখলেন মা।

লকডাউনের মধ্যে একের পর এক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে কথা বলছেন। করছেন বাসের ব্যবস্থা। এভাবেই পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়িতে পৌঁছে দিচ্ছেন বলিউড অভিনেতা সোনু সুদ। সেই কারণেই সোনুকে পরিযায়ী শ্রমিকদের ‘ত্রাতা’ বা ‘মাসিহা’ বলে বর্ণনা করছেন নেটিজেনরা। লকডাউনের মধ্যে বলিউড অভিনেতার এই বিপুল কর্মকাণ্ডে অসহায় মানুষগুলোর মুখে হাসি ফুটতে শুরু করেছে। 

গত কয়েকদিন ধরেই ভারতীয় সোশ্যাল মিডিয়ার ‘নতুন সুপারম্যান’ সোনু সুদ। দুদিন আগেই জানা গিয়েছিল বিহারে অভিনেতার মূর্তি তৈরি করছে একদল যুবক, এবার সামনে এল এক অন্তঃসত্ত্বা পরিযায়ী শ্রমিক সদ্যোজাতর নাম রেখেছেন সোনু সুদের নামে। অভিনেতার সৌজন্যেই ঘরে ফেরেছিলেন সেই প্রেগন্যাট মহিলা, বাড়ি ফিরে জন্ম দিয়েছেন সুস্থ পুত্র সন্তানের। তাই কৃতজ্ঞতা স্বরূপ ছেলের নাম রেখেছেন সোনু সুদ শ্রীবাস্তব। 

অনুপমা চোপড়ার সঙ্গে এক লাইভ আলোচনায় সোনু সুদ জানান, সেই মহিলার পরিবারে লোকজন তাঁকে ফোন করে জানিয়েছে ফুটফুটে পুত্র সন্তানের নাম রেখেছে সোনু সুদ। আপ্লুত সোনু পাল্টা জিজ্ঞাসা করেন ছেলের পদবি তো আলাদা হয়ে যাবে? তোমরা শুধু সোনু রাখতে পারবে। তাঁরা জানায় সুদ পদবি হিসাবে নয় মাঝের নাম হিসাবে ব্যবহার করা হবে। সেই সদ্যোজাতর নাম রাখা হয়েছে সোনু সুদ শ্রীবাস্তব। গোটা ঘটনায় আবেগাপ্লুত সোনু। 

অভিনেতা আরও একটি ঘটনার কথা বলেন। তিনি জানান হাইওয়েতে একটি আট সদস্যের পরিযায়ী শ্রমিক দলের সঙ্গে দেখা হয় তাঁর। তাঁরা মহারাষ্ট্রে সকল সহায়-সম্বল হারিয়ে পায়ে হেঁটে কর্নাটকে নিজেদের গ্রামে ফিরছিল। তাঁদের সঙ্গে কথা বলে আর কয়েকটা দিন অপেক্ষা করতে বলেছিলেন সোনু। প্রশাসনিক স্তরে দ্রুত সব ব্যবস্থা সেরে যেদিন তাঁদের বাসে করে ঘরে ফেরানোর ব্যবস্থা করেন তারকা-তাঁরা বাসে উঠে যেভাবে সোনুকে ধন্যবাদ জানিয়েছিল, তাঁর জন্য গান গেয়েছিল, হাততালি দিয়ে উঠেছিল সেই দৃশ্যটা আজও ভুলতে পারেননি তিনি।

 এদিকে পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি পৌঁছে দিতে হেল্পলাইন নম্বর চালু করেছেন সোনু সুদ। ওই নম্বরে পরিযায়ী শ্রমিকরা ফোন করে কোথায় যাবেন এবং দলে কতজন রয়েছেন তা জানাতে, তাঁদের রাজ্যে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

Gmail 3
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest