‘শক্তিমান’ সোনু সুদ, ২০ ঘণ্টা ঠায় দাঁড়িয়ে বাড়ি পাঠালেন ১২ হাজার পরিযায়ীকে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

মুম্বই: করোনার পরিযায়ী শ্রমিকদের ক্ষতির পরিমাণ কত, তা ভাষায় প্রকাশ করা মুশকিল। কেউ ত্রাণ শিবিরে দিন কাটাচ্ছেন। কেউ প্রাণ বাঁচাতে হাঁটা লাগিয়েছিলেন কয়েকশো মাইল। তাঁদের মধ্যেই অনেকে পথেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন পথেই। এই হতভাগ্য শ্রমিকদের পাশে অনেকেই দাঁড়িয়েছেন সময়ে সময়ে। তবে দায়িত্বজ্ঞানের প্রশ্নে সোনু সুদ অদ্বিতীয়।

সব মিলে সোনু সুদ নিজের দায়িত্বে প্রায় ১২ হাজার পরিযায়ী শ্রমিককে বাড়ি পাঠিয়েছেন। এখানেই শেষ নয়, ২০ ঘণ্টা এক জায়গায় থেকে নিজের দায়িত্বে গোটা বিষয়টি সামাল দিয়েছেন সোনু নিজেই।

বিষয়টা হঠাৎ করেই শুরু হয়। শুরু হয় টুইট দিয়ে। একাধিক ব্যক্তি সোনু সুদকে ট্যাগ করে টুইট করে জানান, তাঁরা মুম্বইয়ে আটকে পড়েছেন। তাঁদের বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করলে ভাল হয়।

একজন লেখেন, তাঁরা পাঁচ জন মু্ম্বই সেন্ট্রালের কাছে আটকে আছেন। বিহারের দ্বারভাঙ্গায় তাঁদের বাড়ি ফিরতে চান। সঙ্গে তাঁর ফোন নম্বরও পোস্ট করেন। শনিবার দুপুর ১২:৫৪ মিনিটে এই পোস্ট করেন বরকত আলি নামে ওই ব্যক্তি। আর সোনু সুদ সেই পোস্টের রিপ্লাই করেন ১:১২ মিনিটে।

সোনু সুদ টুইটের রিপ্লাইয়ে জানান, পরশু তাঁরা বাড়ি পৌঁছে যাবেন। তাঁরা যেন জিনিসপত্র গুছিয়ে রাখেন। আরও কয়েক জনের টুইটের রিপ্লাই করেন সোনু সুদ। তিনি একাধিক বাসের ব্যবস্থা করেন মুম্বই থেকে তাঁদের বাড়ি ফেরার জন্য। এমনকি, নিজে দাঁড়িয়ে থেকে সেই সব ব্যবস্থা তদারকি করেন। সোনু সুদের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তার ভিডিয়ো আপলোড হয়েছে।

সব মিলে সোনু সুদ নিজের দায়িত্বে প্রায় ১২ হাজার পরিযায়ী শ্রমিককে বাড়ি পাঠিয়েছেন। এখানেই শেষ নয়, সোনু পঞ্জাবে র চিকিৎসকদের ১৫০০ পিপিই কিট পাঠিয়েছেন। নিজের হোটেলে স্বাস্থ্যকর্মীদে থাকার ব্যবস্থা করেছেন। ভিওয়ান্ডি এলাকায় পরিযায়ী শ্রমিকদের রমজান উপলক্ষ্যে খাবারের প্যাকেট বিতরণ করে গিয়েছেন নিজেই।

অবশ্য সোনুকে যাঁরা কাছ থেকে চেনেন তাঁরা বলছেন, এই কাজ নতুন নয়। সোনু এর আগেও পুলওয়ামা থেকে বেঁচে ফেরা এক সেনাকর্মীকে নিজের জিমের চাবি দিয়ে দিয়েছিলেন। বহু অ্যাসিড আক্রান্তের পাশে দাঁড়িয়েছেন নিঃশব্দে।

আসলে বলিউডের আলোয় সোনুর উচ্চতা যতটা ধরা পড়ে, মানুষ সোনু সুদ তার থেকে অনেকটা বেশি উচ্চতার। এমন উদ্যোগের অকুণ্ঠ প্রশাংসা করেছেন নেটাগরিকরা।

নেটাগরিকরা তাঁকে ‘সুপারহিরো’, ‘শক্তিমান’ ইত্যাদি নামে ডাকতে শুরু করেছেন। কোনও কোনও শিল্পী সোনু সুদের এই ভূমিকার ছবিও আঁকেন। পরে যা সোনু সুদ তাঁর ফেসবুক পেজে পোস্টও করেন সেই ছবি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest