SP Balasubrahmanyam Birth Anniversary: গানের পাশাপাশি অভিনয়েও পারদর্শী ছিলেন

অন্ধপ্রদেশে জন্ম হলেও এই সংগীতশিল্পী পরবর্তীকালে চেন্নাইয়ে চলে আসেন। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র ছিলেন।

গত বছর আগস্ট মাসে করোনায় আক্রান্ত হন বিখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী এস পি বালাসুব্রহ্মন্যম। তারপর থেকে চেন্নাইয়ের এক হাসপাতালেই ভরতি ছিলেন। কিছুদিন পর থেকে সুস্থ হতেও শুরু করেছিলেন তিনি। বাড়ি ফেরার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন। সব ঠিক থাকলে হয়তো বাড়ি ফিরতেন। কিন্তু সেই ইচ্ছে আর পূরণ হয়নি। গতবছর ২৫ সেপ্টেম্বর মৃত্যু হয় তাঁর। আজ এই অসাধারণ গায়কের জন্মদিন।

পুরো ক্যারিয়ারে চল্লিশ হাজারেরও বেশি গান গেয়েছেন এস পি বালাসুব্রহ্মন্যম। গিনিস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসেও নাম রয়েছে তাঁর। কিন্তু সংগীত দুনিয়ার বাইরেও নিজেকে মেলে ধরেছিলেন বালাসুব্রহ্মন্যম। নব্বইয়ের দশকে বহু দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমায় দেখা যায় তাঁকে। তাঁর অভিনয় একসময় দর্শকদের মন জয় করে ফেলেছিল।

৭২ টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন বালাসুব্রহ্মন্যম। ১৯৭২ সালে মহম্মদ বিন তুঘলকের তেলেগু ভার্সানে প্রথমবার একটি গানের দৃশ্যে দেখা যায় তাঁকে। এরপর ১৯৮৭ সালে পাকাপাকিভাবে কে বালাচান্দেরের সিনেমা মানাধিল উরুধী ভেনদামে অভিনয় করেন। এই সিনেমায় ডঃ অর্থনারির ভূমিকায় দেখা যায় তাঁকে। ১৯৯০ সালে কেলাদি কানমনিতে হিরো হিসেবে দেখা যায় বালাসুব্রহ্মন্যমকে। এই সিনেমায় তাঁর অভিনয় নজর কেড়েছিল।

আরও পড়ুন: মানুষখেকো বাঘিনীর খোঁজ, ‘Sherni’র ট্রেলারে দুঃসাহসিক বিদ্যা, দেখুন…

এরপর ১৯৯৪ সালে প্রভুদেবার সঙ্গে কাধালান সিনেমায় দেখা যায় তাঁকে। পুলিশ কনস্টেবলের ভূমিকায় তাঁর অভিনয় প্রশংসা কুড়িয়েছিল। এরপর ১৯৯৭ সালে মিনসারা কানাভুতে অভনয় করেন বালাসুব্রহ্মন্যম। এই সিনেমায় তাঁর কমেডি মুগ্ধ করেছিল সিনেপ্রেমীদের। ২০০০ সালে প্রিয়ামানাভালেতে বিজয়ের সঙ্গে দেখা যায় তাঁকে। এছাড়াও বহু সিনেমায় পার্শ্ব চরিত্রে তাঁর অভিনয় দর্শকদের মন জয় করেছে বারবার।

অন্ধপ্রদেশে জন্ম হলেও এই সংগীতশিল্পী পরবর্তীকালে চেন্নাইয়ে চলে আসেন। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র ছিলেন। বাড়ি ছেড়ে থাকা শুরু করেছিলেন অনন্তপুর এলাকায়। কিন্তু ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের কোর্স শেষ করা হয়নি তাঁর। পড়াশোনার মাঝেই একাধিক সংগীত প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। সেখান থেকেই ধীরে ধীরে পরিচিতি পেতে শুরু করেন। এরই মাঝে একটি প্রতিযোগিতায় জিতে যান বালাসুব্রহ্মন্যম। এই প্রতিযোগিতার বিচারক ছিলেন এস পি কোদানাদাপানি। যাঁকে গুরু মেনে পরবর্তীকালে সংগীত জীবন শুরু করেছিলেন বালাসুব্রহ্মন্যম। তারপর থেকে আর কোনওদিন ফিরে তাকাননি।

একবছরে ৯৩০ টারও বেশি গান গেয়েছেন তিনি। প্রতিদিন তিনটে করে গান গাইতেন। তেলুগুর পাশাপাশি তামিল, কন্নড়, মালয়ালম, হিন্দি ভাষাতেও গান গেয়েছেন বালাসুব্রহ্মন্যম।

আরও পড়ুন: Salman Khan: সুপারহিরো চুলবুল! অ্যানিমেটেড দাবাং সিরিজ নিয়ে উত্তেজনা বাড়ালেন সলমন!