কেন ষ্টার কিডসদের সিনেমা হিট হয়? কেন সুশান্তের অভিনীত ব্যোমকেশ ফ্লপ হল? দর্শকদের দিকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন স্বস্তিকা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

The News Nest: সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার পর বিনোদন জগতে জাঁকিয়ে বসেছে বিতর্ক। সেই বিতর্কের আঁচ লেগেছে টলিউডেও। সম্প্রতি টলিউডে স্বজনপোষণের অভিযোগ করে সরব হয়েছিলেন শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)।

বিস্ফোরক মন্তব্য-বাণ ছুঁড়েছিলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, সৃজিত মুখোপাধ্যায়-সহ আরও অনেকের উদ্দেশেই। “বলিউডের মতো বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতেও শিল্পীর কাজ পাওয়া বা না পাওয়া নির্ভর করে সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত সম্পর্কের উপর”। তার উত্তরে নাম না করে জবাব দিয়েছিলেন স্বস্তিকা মুখার্জি। বলেছিলেন, পুরুষ অভিনেতারাও কি পরিচালক কিংবা প্রযোজকদের সঙ্গে বিছানায় গিয়ে চরিত্র পান? রবিবার এ বিষয়ে মুখ খুলেছেন অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। নিজের কবিতর মাধ্যমে বলেছেন স্বজনপোষণ সমাজের সব ক্ষেত্রে আছে। সেই কারণেই উকিলের ছেলে উকিল, শিক্ষকের ছেলে শিক্ষক হয়। যদি প্রতিভা শেষ কথা না হত তাহলে অভিষেক বচ্চন আজ সুপারস্টার হত।

গতকালই এক টিভি চ্যানেলে অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তী বলেছিলেন, যে, ‘বাড়িওয়ালি’ ছবির পর তাঁর কেরিয়ারে দীর্ঘ বিরতির কারণ হয়তো তিনি নিজেই। নিজের খামতির জন্যই। কাউকে দোষারোপ করেননি এই নিয়ে। স্বজনপোষণ বিতর্কে সুদীপ্তা চক্রবর্তীর কথায় উঠে আসে নায়িকা ও অভিনেত্রীর মধ্যে পার্থক্যের কথা। যেখানে তিনি বলেছেন, এমন অনেক নায়িকা রয়েছেন যাঁরা অভিনয় করতে পারেননা, অথচ তাঁর ছবি হিট, তাঁরা মানুষের ভালোবাসা পেয়েছেন। আবার কেউ ভালো অভিনেত্রী, তার মানেই যে তিনি নায়িকা হয়ে উঠতে পারবেন তেমনটাও নয়।

আরও পড়ুন: আঁতলামির চাষ করেন? নেটিজেনের প্রশ্নের পাল্টা জবাব অনির্বাণের, ভাইরাল হল কথোপকথন

সুদীপ্তা চক্রবর্তীর সেই কথোপকথনের পরিপ্রেক্ষিতেই রবিবার সোশ্যাল মিডিয়াতে লেখেন স্বস্তিকা। ”খামতি, এই কথাটা তাই সবচেয়ে দামি। আমি কোনওদিন শুভশ্রীর মতো নাচতে পারব না। বিকিনি পরে শট দিতেও পারবো না। আমার চেহারা বিকিনি পরার মতো নয়, আমি অত ভালো নাচতেও পারি না। আবার সুদীপ্তার মত চরিত্রও করতে পারবো না। ওরা যা পারে, সেজন্য ওরা যেসমস্ত কাজ পায় বা পাবে, আমি সেটা না পেলে নিশ্চয় আক্ষেপ থাকবে। তবে তাতে আমার কেরিয়ারের জন্য আমি ওদের দায়ী করতেও পারি না। আমাকে আমার কাজটাই করতে হবে, খামতিগুলো ঠিক করার চেষ্টা করতে হবে। অভিনেত্রী হিসাবে আমার দায়িত্ব রয়েছে। আদপে তো এটা ব্যবসা, কেউ সমাজসেবা করতে আসেননি। হর্ষ নেওটিয়ার ব্যবসা ওনার ছেলেই দেখবে, পাশের বাড়ির ছেলে নয়। এটাই স্বাভাবিক।”

https://www.facebook.com/swasmukherjee13/posts/2849326075176617

পাশাপাশি ওই ফেসবুক পোস্টে দর্শকদের দায়িত্ববোধের কথাও স্মরণ করিয়ে দেন তিনি। সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রসঙ্গ এনে স্বস্তিকা আরও লেখেন, ”দর্শক হিসাবেও আমাদের কিছু দায়িত্ব রয়েছে। তারকা সন্তান, যাঁরা অভিনয় পারেন না বলছি, তাঁদের ছবি হিট হচ্ছে কী করে? সুশান্তের রবতা, ডিটেক্টিভ ব্যোমকেশ বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ল কেন? একটা ছোট শহরের ছেলে নিজের দক্ষতায় যখন জায়গা করছে, তখন দর্শকদের পাশে থাকার দরকার ছিল, করেছি কি আমরা? ভবিষ্যতে কি করব? করব না। আমরা সুযোগ পেলেই একে অপরের ঘাড়ে দোষ চাপাবো।… ”

এরপর ফের ফেসবুক পোস্টে নিজের মতামত ব্যক্ত করেন শ্রীলেখা।

https://www.facebook.com/sreelekha.mitra.7/posts/10218478418136512

আরও পড়ুন: উকিলের ছেলে উকিল হলে কী স্বজনপোষণ নয়? এবার মুখ খুললেন রুদ্রনীল, ফের ভাইরাল হল কবিতা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest