নববর্ষকে স্বাগত জানান এই তিন ধরণের শাড়িতে…

বৈশাখের সকালে হালকা সাজগোজই ভালো।  আগের দিন অবশ্যই ত্বকের ধরন বুঝে ফেসিয়াল করা উচিত।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

নববর্ষ প্রতিটি বাঙালির কাছে বিশেষ উৎসব। এই উৎসবে গা ভাসান সকল বাঙালি। আর তাই বাংলা বছরের এই প্রথম দিনের ফ্যাশনও বেশ গুরুত্ব পায় রমণীদের কাছে। সে কারণেই ইতিমধ্যেই অনেকে শুরু করে দিয়েছেন শপিং। এই দিন শাড়িতে সেজে উঠতে চান। আপনারও এমন ইচ্ছে হলে বেছে নিতে পারেন এই ধরণের শাড়ি। রইল নববর্ষে সেজে ওঠার টিপস।

১. এদিন স্টাইলিশ তকমা পেতে চাইলে অবশ্যই পরুন হ্যান্ডলুম কটন শাড়ি। এক্কেবারে আলাদা লুক চাইলে ক্রপটপের সঙ্গে মিক্স অ্যান্ড ম্যাচ করুন হ্যান্ডলুম কটন। পুরো বদলে যাবে আপনার লুক।

২. সিল্কের শাড়ি অধিকাংশেরই পছন্দ। কারণ, এধরনের শাড়ি ক্যারি করা খুবই সুবিধের। এখন হ্যান্ডলুমে এসেছে সিল্কের ছোঁয়া। এবছর নববর্ষে বেছে নিতে পারেন হ্যান্ডলুম সিল্ক।

আরও পড়ুন: বিয়েবাড়ি যাচ্ছেন, জানেন কোন রঙের পোশাক ফ্যাশনে Trending

৩. রয়েছে লিনেন। যে কোনও রঙের লিনেনই বদলে দেবে আপনার লুক। ক্রপ টপ, কলমকারি ব্লাউজ কিংবা বোটনেক ব্লাউজের সঙ্গে লিনেন বেশ মানায়।

যারা শাড়িতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন না তারা এই বৈশাখে বেছে নিতে পারেন কুর্তি কিংবা সালোয়ার-কামিজ। উৎসবের রঙে নিজেকে সাজাতে ছেলেরা বেছে নিতে পারেন সাধারণ কাটের ট্রেন্ডি পাঞ্জাবি বা ফতুয়া। এসব পাঞ্জাবিতে থাকছে স্ট্ক্রিনপ্রিন্ট, এমব্রয়ডারি, বা অ্যাপ্লিক ও হাতের কাজ। ফেব্রিক ভেরিয়েশনের জন্য গরমেও পাওয়া যাবে বিশেষ আরাম। মেয়েদের পোশাকের মধ্যে শাড়ি, ড্রেস, সিঙ্গেল কামিজ, কুর্তি, স্কার্ট-টপস, পালাজ্জো, ওড়না, ব্লাউজ।

বৈশাখের সকালে হালকা সাজগোজই ভালো।  আগের দিন অবশ্যই ত্বকের ধরন বুঝে ফেসিয়াল করা উচিত। সম্ভব না হলে এক্সফলিয়েট করে নিন অথবা ফেসিয়াল মাস্ক লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

আরও পড়ুন: রেট্রো লুক স্টাইলিশ ব্লাউজ এখন ফ্যাশনে ইন, আপনাদের জন্য রইলো কয়েকটি ডিজাইন

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest