শুক্রবার আর একদফা কমল সোনার দাম, সস্তা হল রুপোও

গত দুই দিনের পুনরাবৃত্তি ঘটিয়ে শুক্রবারও বাজারে সোনার দামে পতন দেখা দিল। এ দিন এমসিএক্স সূচকে ০.০৪% পতনের ফলে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম যাচ্ছে ৪৮৭৫৩ টাকা।পাশাপাশি, এ দিন সূচকে ০.৭% পড়েছে রুপোর দরও, যার জেরে প্রতি কেজি রুপোর দাম যাচ্ছে ৫২,২৫৭ টাকা।

গত সপ্তাহে প্রতি ১০ গ্রামে রেকর্ড ৪৯.৩৪৮ টাকা দাম ওঠার পরে ভারতীয় বাজারে সোনার দামে লাগাতার ওঠানামা লেগে রয়েছে। মনে রাখতে হবে, সোনার দামের মধ্যে ধরা থাকে ১২.৫% আমদানি শুল্ক এবং ৩% জিএসটি।

আরও পড়ুন : উচ্চ মাধ্যমিকের ফল প্রকাশ…

আন্তর্জাতিক বাজারে এ দিন সোনার দামে কোনও চড়াই-উতরাই না থাকার কারণে প্রতি আউন্সের দাম যাচ্ছে ১,৭৯৭.২৪ ডলার। সূচকে ০.১% উত্থানের জেরে প্রতি আউন্স রুপোর দাম যাচ্ছে ১৯.১৯ ডলার।

চলতি বছরে বিশ্ববাজারে সোনার দামে বৃদ্ধি হয়েছে ১৯%। এর পিছনে রয়েছে করোনা অতিমারীর ফলে অর্থনৈতিক পরিস্থিতি চাঙ্গা করার জন্য প্রধান ব্যাঙ্কগুলি আরও সুবিধাজনক আর্থিক প্যাকেজ করতে পারে, এই সম্ভাবনার প্রতি আস্থা।

সোনা নিজে কোনও সুদ না দিলেও সংকটকালে সুদের হার কমে গেলে সোনায় বিনিয়োগ লাভজনক মনে করছেন লগ্নিকারীরা। সেই ট্রেন্ড মেনেই করোনাভাইরাস সংক্রমণের আবহে সোনার চাহিদা তুঙ্গে রয়েছে, যার জেরে তার দামে বড়সড় পতন দেখা দেয়নি।

করোনা প্রভাব ফেলছে বিশ্বঅর্থনীতিতে। বিশেষজ্ঞদের দাবি, ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি এবং বর্তমান ভৌগোলিক ও রাজনৈতিক কারণে সোনার দরে অস্থিরতা আপাতত বজায় থাকবে। গহনার চাহিদা নেই। কিন্তু সোনার ব্যাপারে লোকের আগ্রহ রয়েছে। আসলে বিনিয়োগ করার বহু জায়গা এখন বন্ধ। অনেকে তাই সোনাতে বিনিয়োগ করছেন।

আরও পড়ুন : সবটাই হবে অনলাইনে, ১০ অগাস্ট থেকে শুরু ফর্ম ফিল আপ কলেজে কলেজে