সাধারণ জ্বর ভেবে ভুল করলেই বিপদ!কলকাতায় স্ক্রাব টাইফাসের হানা, ভেন্টিলেশনে ২ শিশু

ওয়েব ডেস্ক: করোনা, ডেঙ্গির পর এবার স্ক্রাব টাইফাস আতঙ্ক। কলকাতার বেসরকারি শিশু হাসপাতালে ভেন্টিলেশনে রয়েছে দুই স্ক্রাব টাইফাস আক্রান্ত শিশু। জ্বর আসায় দুই শিশুকে হাসপাতালে ভর্তি করতে গিয়ে চরম ভোগান্তির মুখে পড়ে তাদের পরিবার। একাধিক হাসপাতালের বিরুদ্ধে ভর্তি না নেওয়ার অভিযোগ পরিবারের।

আবহাওয়া বদলাচ্ছে। একটু একটু করে প্রভাব পড়ছে বর্ষার। আর তার সঙ্গেই ঘরে ঘরে সর্দি-জ্বরের সমস্যা শুরু হয়েছে। আবহাওয়ার পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে ‘ভাইরাল ফিভার’-এর পাশাপাশি আতঙ্ক বাড়াচ্ছে ডেঙ্গি। অধিকাংশ ক্ষেত্রে রক্ত পরীক্ষার আগে পর্যন্ত বোঝাই যাচ্ছে না জ্বরের কারণ। কিন্তু সাম্প্রতিক কয়েকটি ঘটনা সাধারণ মানুষের পাশাপাশি চিন্তা বাড়িয়েছে চিকিৎসকদেরও। নতুন আতঙ্কের নাম ‘স্ক্রাব টাইফাস’!

আরও পড়ুন : বর্ষার মরশুমে রোগ জীবাণুর হাত থেকে বাঁচতে ভরসা রাখুন কালো জিরের উপর…

‘স্ক্রাব টাইফাস’ এই নামের সৃষ্টি হয়েছে গ্রিক শব্দ typhus থেকে যার অর্থ হল ধোঁয়াটে বা অস্পষ্ট। ট্রম্বিকিউলিড মাইটস বা টিকের (tick) মতো পরজীবী মাকড়ের কামড় থেকে এই এই রোগের জীবানু ছড়ায়। ট্রম্বিকিউলিড মাইটস বা টিকের আকার ০.২ মিলিমিটার থেকে ০.৪ মিলিমিটার পর্যন্ত হয়। ‘স্ক্রাব টাইফাস’ একটি ব্যাকটেরিয়াঘটিত রোগ। প্রধানত ‘ওরিয়েনসিয়া শুশুগামুসি’ নামের ব্যাক্টেরিয়াই এ রোগের জন্য দায়ি।

ডেঙ্গি বা টাইফয়েডের সঙ্গে স্ক্রাব টাইফাসের উপসর্গগুলির অনেক মিল রয়েছে। সে জন্যই প্রাথমিক ভাবে এটিকে আলাদা করে শনাক্ত করা মুশকিল হয়। শরীরে জীবাণু সংক্রমিত হওয়ার প্রায় ১-২ সপ্তাহ পর শীত শীত ভাব, কাঁপুনি-সহ আকস্মিক জ্বর, মাথা ব্যথার মতো উপসর্গ দেখা দেয়। এই উপসর্গগুলি দেখা দেওয়ার ৩ থেকে ৫ দিন পরে শরীরের বিভিন্ন অংশে ফুসকুড়ি দেখা দেয়।

অনেকেই স্ক্রাব টাইফাসে আক্রান্ত হয়েছেন, আবার সম্পূর্ণ সেরেও উঠেছেন সকলেই। তাই এ নিয়ে অযথা ভয় পাওয়ার কিছু নেই। তবে সময় মতো চিকিৎসা শুরু করা না গেলে শিশুদের ক্ষেত্রে বড়সড় বিপদ ডেকে আনতে পারে স্ক্রাব টাইফাস।

আরও পড়ুন : Fresh Veggies Day: ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে চান? পাতে রাখুন এসব সবুজ সবজি

Gmail 3