সামনেই পুজো, জেনে নিন কিভাবে ঝরাবেন শরীরের অতিরিক্ত মেদ

এমনিতেই করোনার ভয়ে বেশ কয়েকমাস বাইরে বেরোনো হয়নি। যাঁরা পড়ুয়া তাঁদের একদিকে অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমেই পড়াশুনো সামলাতে হয়ছে, তেমনই অন্যদিকে যাঁরা চাকুরীজীবী তাঁরাও সপ্তাহের ছয়টা দিন ওয়ার্ক ফর্ম হোম করেই কাজ সেড়েছেন। এইসবের মাঝে দৈহিক পরিশ্রম কাওকেই বিশেষ করতে হয়নি, যে কারণে শরীরে অতিরিক্ত মেদ জন্মেছে। ভাবছেন, নিজেকে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনবেন কিভাবে, তাই তো? তাহলে ফলো করুন কয়েকটি ঘরোয়া টিপস।

১. নিয়ম করে ঘন্টাখানেক করে ফেলুন পেটের ব্যায়াম। চিৎ হয়ে শুয়ে, মাটি থেকে পা সোজা করে ১৫ ডিগ্রি ওপরে ১৫ সেকেন্ড তুলে রাখুন। এভাবে দিনে পাঁচবার করুন। অভ্যস্ত হলে ১০ থেকে ১৫ বার করুন।

২. পেটের মেদ কমাতে খাওয়া শুরু করুন আমিষ। প্রোটিন শরীরের মেটাবলিজম বাড়ায় ও চর্বি পোড়ায়। তবে প্রোটিনের সঙ্গে চর্বি যাতে শরীরে ঢুকে না পড়ে সেদিকে খেয়াল রাখুন। সেই কারণে অতিরিক্ত তেল, ঝাল, মশলাযুক্ত খাবার বাদ দিন।

আরও পড়ুন:  মেদ বাড়ছে আপনার? ঝটপট ঝরিয়ে ফেলুন তুলসি পাতার টোটকায়!

৩. পেটের মেদ কমাতে শর্করা জাতীয় খাবার কম খান। তালিকা থেকে যথাসম্ভব চিনি দূরে রাখুন। চিনির বদলে সুক্রোলোজ (যা বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সুগার ফ্রি নামে পাওয়া যায়) ব্যবহার করুন। এমনকি মধু হলেও তা পরিমিতভাবে খান। ভাত খাবেন অল্প করে। যাঁরা ভাত বেশি খান তাদের পেটে তো বটেই, লিভারেও চর্বি জমে।

৪. প্রতিদিনের সকালটা শুরু হোক লেবুর সরবত দিয়ে। এই পদ্ধতি পেটের মেদ কমানোর সবচেয়ে কার্যকরী ১টি উপায়। ১ গ্লাস হালকা গরম জলে লেবু চিপে সরবত করে সঙ্গে একটু নুন মিশিয়ে নিন। ইচ্ছে হলে একটু মধুও মিশিয়ে নিতে পারেন। কিন্তু চিনি মিশাবেন না। প্রতিদিন সকালে পানীয়টি পান করুন। এই পানীয় আপনার বিপাক প্রক্রিয়া বাড়িয়ে পেটের মেদ কমাতে সাহায্য করবে।

আরও পড়ুন: ওজন কমাতে চান? মাত্র সাত দিন ফলো করুন লেমন ডিটক্স ডায়েটিং