বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নাকের লোমগুলো আগের চেয়ে অনেক বেশি ঘন হয়ে ওঠে। এটি পুরুষের হরমোন অ্যান্ড্রোজেনের কারণে চুলের ফলিকলগুলো সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরও সংবেদনশীল হয়ে ওঠে। অনেক সময় দেখা যায় লোমগুলো বড় হয়ে নাকের বাইরে বের হয়ে আসছে।

নাকের লোম নিয়ে অনেকেই বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়েন। এজন্য লোম বড় হতেই অনেকেই বিভিন্ন উপায়ে তা তোলার চেষ্টা করে থাকেন। তবে জানেন কি, সঠিক উপায়ে নাকের লোম তোলা না হলে মারাত্মক বিপদ হতে পারে! কয়েকটি কৌশল আছে, যেগুলো ব্যবহার করে কখনো নাকের লোম ওঠানো উচিত নয়।

আরও পড়ুন : মুখে দুর্গন্ধ? কোন কোন ফল খেলে মুক্তি পাবেন এই সমস্যা থেকে?

টুইজার ব্যবহার করবেন না

বেশিরভাগ মানুষই টুইজার ব্যবহার করে নাকের লোম তুলে থাকেন। এতে প্রচণ্ড ব্যথা সহ্য করতে হয়। এ ছাড়াও টুইজার ব্যবহারের ফলে একসঙ্গে অনেকগুলো লোম ওঠায় নাকের ভেতরের ত্বকে কিছুটা সংক্রমণও হতে পারে।

ওয়াক্সিং এড়িয়ে চলুন

বর্তমানে অনেকেই নাকে ওয়াক্স ব্যবহার করে লোম টেনে তুলেন। যা নাকের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। নাকের লোমগুলো আপনাকে বিভিন্ন ক্ষতিকারক জীবাণু থেকে রক্ষা করে।

তবে ওয়াক্সিং করলে নাকের ভেতরের সব লোমগুলোই উঠে আসে। এর ফলে বিভিন্ন ক্ষতিকর জীবাণু নিঃশ্বাস নেওয়ার মাধ্যমে সহজেই নাকের মধ্যে দিয়ে প্রবেশ করে।

হেয়ার রিমুভাল ক্রিম

হেয়ার রিমুভাল ক্রিমগুলোত একত কিছু কেমিকেল থাকে, যা চুলের ক্যারেটিন প্রোটিনকে ধ্বংস করে। এই ক্রিমগুলো আপনার পা এবং বুকে ব্যবহার করা যেতে পারে।

তবে এটি নাকে ব্যবহার করা উচিত নয়। এ ছাড়াও এই রাসায়নিকের গন্ধ অ্যালার্জির কারণ হতে পারে। নাকের ত্বক স্বাভাবিকভাবেই সংবেদনশীল হয়ে থাকে। তাই নাকের লোম তোলার ক্ষেত্রে সঠিক উপায় অবলম্বন করুন।

কীভাবে নাকের লোম ওঠাবেন-

নাকের লোম ওঠানোর সবচেয়ে নিরাপদ এবং সর্বাধিক ব্যবহারযোগ্য বিকল্প হলো ট্রিমিং করা বা ছেঁটে ফেলা। এজন্য ছোট কাঁচি ব্যবহার করুন। তবে বেশি পরিমাণে লোম কাটবেন না না। এতে আপনারই ক্ষতি হবে।

আরও পড়ুন : ছোট স্তন নিয়ে অবসাদ? কোনও সার্জারি ও ওষুধ ছাড়াই বড় করুন এ ভাবে

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *