‘গোমূত্র পার্টি’র আয়োজন হিন্দু মহাসভা! খেলেই তৎক্ষণাৎ মারা যাবে করোনাভাইরাস, দাবি সভাপতির

নয়াদিল্লি: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে চা পার্টির মতো এবার ‘গোমূত্র পার্টি’ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে হিন্দু মহাসভা। সংগঠনের সভাপতি চক্রপাণি মহারাজ একথা জানিয়েছেন। এর আগে করোনাভাইরাসকে ‘অবতার’ আখ্যা দিয়েছিলেন চক্রপাণি মহারাজ। আমিষাশীদের শাস্তি দিতে ও ক্ষুদ্র প্রাণিদের রক্ষার্থেই এই ভাইরাসের পৃথিবীতে আগমন বলে মন্তব্য করেছিলেন তিনি।

সারা বিশ্বে যে মারণ ভাইরাসের থাবা আটকাতে প্রতিষেধক তৈরির জন্য রাত-দিন এক করে ফেলছেন বিজ্ঞানী-গবেষকরা, সেখানে হিন্দু মহাসভার দাবি, করোনা রুখতে একমাত্র ‘মহৌষধি’ গোমূত্র এবং গোবর। মহাসভার সভাপতি চক্রপাণি মহারাজ জানিয়েছেন, দিল্লিতে যাতে করোনার প্রকোপ ব্যাপক হারে ছড়িয়ে না পড়ে, তার জন্যই এই ‘গোমূত্র পার্টি’র আয়োজন।

আরও পড়ুন: ভারতে করোনা আক্রান্ত বেড়ে ২৮,আতঙ্কিত হতে নিষেধ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

চক্রপাণি মহারাজ একটি সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, ‘‘যেমন আমরা চা-চক্রের আয়োজন করি, তেমনই গোমূত্র পার্টির আয়োজন করছি। সেখানে করোনাভাইরাস কী এবং কী ভাবে গরু থেকে প্রাপ্ত জিনিসপত্র খেয়েই এই ভাইরাসমুক্ত থাকা যায়— সে সব নিয়ে সচেতনতার প্রচার করা হবে।’’ পার্টিতে কী থাকবে? মহাসভার সভাপতি বলেন, ‘‘এমন কাউন্টার থাকবে, যেখান থেকে পার্টিতে আসা লোকজনকে গোমূত্র খাওয়ার জন্য দেওয়া হবে। পাশাপাশি আমরা গোবরের কেক বা ঘুঁটে, গোবর দিয়ে তৈরি আগরবাতিও রাখব। এগুলি খেলে বা ব্যবহার করলে ভাইরাস (করোনা) সঙ্গে সঙ্গে মারা যাবে।’’

আরও পড়ুন: করোনা মৃত্যুমিছিল এবার ইরানে, আক্রান্ত পার্লামেন্টের সদস্যরা, সাময়িক মুক্তি দেওয়া হল ৫৪ হাজার বন্দিকে

সারা দেশের বিজ্ঞানীরা যেখানে কার্যত করোনা রুখতে প্রাণপাত করছেন, একমাত্র সাবধানতা বা সতর্কতা ছাড়া আর কোনও দাওয়াই নেই বলছেন, সেখানে গোমূত্র-গোবরের এমন ‘পথ্যি’ যে অনেকেই বিশ্বাস করবেন না, তা বিলক্ষণ জানেন মহারাজ নিজেও। তাই বলেছেন, ‘‘জীব হত্যা মহাপাপ, এই বার্তা আমরা ছড়িয়ে দিতে চাই। করোনা ভাইরাস যে জীব হত্যার কারণেই ছড়িয়েছে, সেটা প্রচার করতে চাই। জানি, অনেকেই আমার কথা বিশ্বাস করবে না। কিন্তু ভারতে যে হেতু অধিকাংশই নিরামিষাশী, তাই এখানে এই ভাইরাস ছড়াবে না।’’