DGGI recovers Rs 10 cr more from Piyush Jain, total cash seizure reaches Rs 187.45 cr

‘ঘরে ১৮৫ কোটি কোথা থেকে এল?’ ব্যবসায়ীর আজব জবাব শুনলে হেসে ফেলবেন আপনিও

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

দীর্ঘ কয়েক ঘণ্টার তল্লাশির পর উত্তর প্রদেশের পারফিউম ব্যবসায়ী পীযূষ জৈনের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় ১৮৫ কোটি টাকা। এত বিপুল পরিমাণ নগদ অর্থ দেখে চোখ কপালে আয়কর কর্মকর্তাদের। এ ঘটনায় পীযূষকে কর্মকর্তারা প্রশ্ন করেন, ‘এত টাকা এলো কোথা থেকে?’ জবাবে পিযুষ বলেন, ‘বাড়িতে ৪০০ কেজি সোনা ছিল। পৈতৃক সম্পত্তি ছিল সেই সোনা। সেই সোনা বিক্রি করে এত টাকা পেয়েছি।’ এ কথা শুনে কর্মকর্তারা হেসে লুটোপুটি।

সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ইনডিরেক্ট ট্যাক্সেস অ্যান্ড কাস্টমসের দল গত পরশু অভিযান চালায় অখিলেশ ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত ব্যবসায়ী পীযূষের বাড়িতে। সম্প্রতি পীযূষ জৈন ‘সমাজবাদী পারফিউম’ নামক এক সুগন্ধী এনেছিলেন বাজারে। এরপরই তাঁর বিরুদ্ধে করফাঁকির অভিযোগ ওঠে।

আরও পড়ুন: হরিদ্বারে ‘ধর্ম সংসদে’ সংখ্যালঘুদের গণহত্যার উসকানি! অভিযোগ দায়ের করল তৃণমূল

সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই এই তল্লাশি অভিযান চালানো হয়েছিল। আর সেই অভিযানে মাথা ঘুরিয়ে দেওয়ার মতো পরিমাণ অর্থ বাজেয়াপ্ত করলেন আয়কর আধিকারিকরা।

জৈনের বাড়ি ছাড়াও তাঁর কারখানা, দফতর, কোল্ডস্টোর, পেট্রোল পাম্পে তল্লাশি চালায় আয়কর দফতর। কানপুর ছাড়াও মুম্বইতে পীযূষ জৈনের বাসভবনে ব্যাপক তল্লাশি চলে। সূত্রের খবর পীযূষ জৈনের নামে ৪০টি সংস্থা নথিভুক্ত রয়েছে। যার মধ্যে ২টি রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলিতে। তদন্তকারী দল সূত্রের খবর ভুয়ো সংস্থার নাম দেখিয়ে ওই ব্যবসায়ী প্রচুর টাকার করফাঁকি দিতেন। তাছাড়া জাল বিল দিয়ে ব্যবসা করা হচ্ছিল বলেও অভিযোগ আসে৷ সেই সংক্রান্তও কিছু নথি পাওয়া গিয়েছে বলে খবর৷

আরও পড়ুন: বিহারের নুডলস কারখানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ, হত কমপক্ষে ৬

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest