For Bulli Bai App, Bengaluru Student Arrested, Uttarakhand Woman Detained

আপত্তিকর অ্যাপ বানিয়ে মুসলিম মহিলাদের ‘নিলাম’! গ্রেফতার ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

আপত্তিকর অ্যাপ বানিয়ে মহিলাদের ‘নিলাম’-এ তোলার ঘটনায় দেশে সাড়া পড়ে গিয়েছে। একাধিক থানায় এই সংক্রান্ত অভিযোগও দায়ের হয়েছে। এ বার সেই মামলায় বেঙ্গালুরু থেকে এক ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়াকে গ্রেফতার করল মুম্বই পুলিশ। ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে এক মহিলাকেও আটক করা হয়েছে বলে খবর।

মঙ্গলবার ধৃত পড়ুয়া বিশাল কুমারকে বান্দ্রা আদালতে তোলা হলে, পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃতের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টের ছবি দেখে সন্দেহ হয় তদন্তকারীদের। মুসলিম মহিলাদের ছবি বিকৃত করে অশ্লীল ভাবে ব্যবহার অ্যাকাউন্টে। সেই অ্যাকাউন্টের আইপি অ্যাড্রেস চিহ্নিত করেই এই গ্রেফতারি। তাঁকে পুলিশের হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। আদৌ গোটা ঘটনায় সেই ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া জড়িত, না কোনও বিশেষ চক্রের  সে সদস্য মাত্র।

‘সুল্লি ডিলস’-এর পর এ বার ‘বুল্লি বাই’। উদ্দেশ্য একই, মোদী সরকারের সমালোচনা করেন এমন মহিলাদের ‘নিলামে’ তোলা! বছরের প্রথম দিন এমনই আপত্তিকর অ্যাপ ‘বুল্লি বাই’ নিয়ে সরব হন বহু মহিলা এবং বিভিন্ন সংস্থা। অভিযোগ, মূলত মুসলিম ধর্মাবলম্বী মহিলাদের, যাঁরা বিভিন্ন সময় মোদী সরকারের সমালোচনা করেন, তাঁদের আপত্তিকর ভাবে ‘নিলামে’ তোলা হয়েছে। তাতে রয়েছে দেশের বিভিন্ন মহিলা সাংবাদিকের নাম।

আরও পড়ুন: জানুয়ারিতে ১৬ দিন বন্ধ ব্যাঙ্ক, দেখে নিন পূর্ণাঙ্গ তালিকা

তেমনই সামাজিক ক্ষেত্রে কাজ করা আইনজীবী ও অন্য মুসলিম মহিলাদের নিয়েও আপত্তিকর ছবি ও ভাষা ব্যবহার হয়েছে সেখানে। ঠিক একই ঘটনা ঘটেছিল আগেও। দেখা যায়, ‘সুল্লি ডিলস’ যে প্ল্যাটফর্ম থেকে অ্যাপ তৈরি করে তা প্রচার করেছিল, এ ক্ষেত্রেও একই ‘গিটহাব’ প্ল্যাটফর্ম করা হয়েছে। ‘সুল্লি ডিলস’-এর সময় পুলিশে অভিযোগ করা হয়েছিল। কিন্তু এখনও সেই মামলায় একজনকেও গ্রেফতার করতে পারেনি তারা।

শিবসেনা সাংসদ প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী মহারাষ্ট্রের সরকারকে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন জানিয়েছিলেন। সরব হয়েছিলেন কংগ্রেসের রাহুল গান্ধীও। অভিযোগ দায়ের হয়। তার পরই তদন্তে নেমে বেঙ্গালুরু থেকে এক ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়াকে গ্রেফতার করে মুম্বই পুলিশ। ধৃতের নাম বিশাল ঝা। এই বিষয়ে তাঁর সঙ্গে সম্পর্ক আছে, এমন সন্দেহে আরও এক মহিলাকেও আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, সংশ্লিষ্ট অ্যাপটিতে সুকৌশলে গুরমুখী ভাষা ব্যবহার করা হয়েছিল। যাতে মহিলাদের নিয়ে আপত্তিকর ভাষা ও ছবি ব্যবহারের দায় গিয়ে চাপে খলিস্তানী গোষ্ঠীর উপর। অভিযোগ পাওয়ার পর তড়িঘড়ি অ্যাপটিকে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: ফের খবরে কর্ডেলিয়া! আটকে মাঝসমুদ্রে ক্রুজ, বন্দি প্রায় ২ হাজার যাত্রী

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest